banglanewspaper

চিরসুন্দর ঋতুরাজ বসন্তের ফাল্গুনের ৫ম দিন আজ। হঠাৎই রাজধানীতে ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা বৃষ্টি হয়েছে। রবিবার ( ১৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে সাতটার দিকে বৃষ্টি নামে। বৃষ্টির পাশাপাশি বয়ে যায় দমকা হাওয়া।

তবে বৃষ্টি বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। বৃষ্টি বেশিক্ষণ না থাকলেও আকাশ এখনও মেঘাচ্ছন্ন। বেশ ঠাণ্ডা বাতাসও বইছে। আকাশও এখনও কালো মেঘে ঢাকা। কিছুক্ষ পর পর মেঘও ঢাকছে।

এদিকে, ফাল্গুনে এই হঠাৎ বৃষ্টিতে বিপাকে পড়েন রাজধানীর পথচারীরা। মাত্র ১৫ মিনিটের বৃষ্টি কর্মজীবিদের কিছুটা হলেও দুর্ভোগের মধ্যেই ফেলে দেয়। জীবিকার প্রয়োজনে নিম্নআয়ের মানুষগুলো ঘর থেকে বেরিয়ে বৃষ্টিতে ভিজেছেন। স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি অফিসগামী অনেককেই বৃষ্টিতে ভিজে পথ চলতে দেখা গেছে।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে থাকেন হাসনা জামান। তিনি জানান, সকালে মেয়েকে স্কুলে দিয়ে অফিসে যান তিনি। হঠাৎ বৃষ্টিতে চরম ভোগান্তিতে পড়েন। মেয়ে ও তিনি দুজনের ভিজে যান। বৃষ্টিতে কোনো যানবাহন পাননি।

রাজধানীর ওয়ারীর বাসিন্দা সেলিম ভূঁইয়া বলেন, যেভাবে বৃষ্টি নেমেছিলো ভেবেছিলাম রাস্তাঘাট তলিয়ে দেবে। কিন্তু কিছুক্ষণ পরই থেমে যায়। প্রতিদিন বাসেই অফিসে যাই। রাস্তায় বাস ছিলো না। তাই রিক্সায় যাচ্ছি। বৃষ্টির সুযোগে ভাড়াটা আজ অনেক বেশি নিয়েছে। কি করার। অফিসতো যেতেই হবে। 

সাত সকালের বৃষ্টিতে কারওয়ান বাজারের কাঁচাবাজার এলাকায় খেটে খাওয়া মানুষের চরম ভোগান্তি দেখা যায়। মাত্র ১৫ মিনিটের বৃষ্টিতে রাস্তায় পানি উঠে যায়। সবজিসহ কাঁচা পণ্য নিয়ে বিপাকে পড়েন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা।

ট্যাগ: bdnewshour24 বৃষ্টি