banglanewspaper

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে বেশ কিছুদিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ও সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার। অচিরেই শেষ হয়ে যাচ্ছে তাঁদের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ। আগামী ২৯ মার্চ এই মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা। এর পরই পাকিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজ দিয়ে আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরছেন তাঁরা।

পাকিস্তানের বিপক্ষে এই সিরিজে স্মিথ-ওয়ার্নারকে পুরোনো রূপে দেখতে চান অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। তিনি বলেন, ‘বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম দুই সেরা ব্যাটসম্যান স্মিথ ও ওয়ার্নার। দীর্ঘদিন পর আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরছে তারা। আশা করছি, সেরা রূপেই দেখা যাবে স্মিথ-ওয়ার্নারকে।’

গত বছর মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে বল টেম্পারিংয়ের সঙ্গে জড়িত ছিলেন স্মিথ-ওয়ার্নার। তরুণ ক্যামেরন বেনক্রফটকে দিয়ে বল টেম্পারিং করান তাঁরা। পরে তা স্বীকারও করেন দুজনেই। স্মিথ-ওয়ার্নারকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক বছরের জন্য এবং বেনক্রফটকে ছয় মাসের জন্য নিষিদ্ধ করে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)।

আগামী মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাকিস্তানের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার কথা তাঁদের। ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে তাঁদের প্রত্যাবর্তনে বেশ খুশি ল্যাঙ্গার, ‘বিশ্বকাপের আগেই দুজনের একসঙ্গে ক্রিকেটে ফেরাটা আমাদের জন্য খুশির খবর। কারণ, তাঁরা দলের অপরিহার্য খেলোয়াড়।’

আসন্ন এই সিরিজে তাঁদের কাছে খুব ভালো পারফরম্যান্স আশা করছেন না ল্যাঙ্গার, ‘দীর্ঘদিন পর আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে নামবে স্মিথ-ওয়ার্নার। শুরুতেই তাদের কাছ থেকে বড় কিছু আশা করাটা ভুল হবে। আন্তর্জাতিক অঙ্গনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে তাদের সুযোগ দিতে হবে।’

ট্যাগ: bdnewshour24 অস্ট্রেলীয়