banglanewspaper

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবস উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) এলাকায় বুধবার সন্ধ্যার পর থেকে আইডি কার্ড (পরিচয় পত্র) ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না। সেদিন সন্ধ্যা ছয়টা থেকে পরদিন ২১ ফেব্রুয়ারি রাত এগারোটা পর্যন্ত ঢাবি এলাকার সড়কে সব ধরনের যান চলাচলও বন্ধ থাকবে।

রবিবার ডিএমপি হেডকোয়ার্টার্সে ‘শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০১৯’উপলক্ষে নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার উপ কমিশনার মাসুদুর রহমান এ তথ্য জানান।

ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়ার সভাপতিত্বে ঢাবির প্রক্টর গোলাম রাব্বানী ছাড়াও ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন, ফায়ার সার্ভিস, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সহ সরকারের বিভিন্ন সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

শহীদ দিবসের আগের দিন অর্থাৎ ২০ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় আইডি কার্ড ব্যতীত প্রবেশ নিষিদ্ধ থাকবে। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণসহ আশপাশ এলাকায় পর্যাপ্ত সংখ্যক অফিসার ও ফোর্স মোতায়েন থাকবে।

শহীদ মিনারের প্রতিটি প্রবেশগেটে পর্যাপ্ত সংখ্যক আর্চওয়ে গেট এবং দর্শনার্থীদের হ্যান্ড মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তল্লাসি করা হবে। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও এর আশপাশ এলাকায় সিসি ক্যামেরা, ফুটেজ পর্যবেক্ষণের জন্য অস্থায়ী পুলিশ কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হবে।

এছাড়াও ২০ ফেব্রুয়ারি শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ ও ঢাবির আশপাশের এলাকায় বোম্ব ডিসপোজাল টিম এবং ডগ স্কোয়াড দ্বারা সুইপিং করা হবে। থাকবে ওয়াচ টাওয়ারও। নিরাপত্তার স্বার্থে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে হকার উচ্ছেদের জন্য পুলিশের আলাদা টিম মোতায়েন থাকবে। বিদেশি রাষ্ট্রদূত, কূটনৈতিক ও নাগরিকদের জন্য থাকবে বিশেষ টিম।

ট্যাগ: bdnewshour24 ডিএমপি