banglanewspaper

ডানেডিনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচে আজ সাব্বির রহমান দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি করলেন। দলের বিপর্যয়ের মুখে সাব্বিরের নজরকাড়া শতরান বাংলাদেশকে সম্মানজনক স্কোর এনে দেয়। ২০১৪ সালে বাংলাদেশের হয়ে অভিষেকের পর ক্রিকেটের তিন ফরম্যাট মিলিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এটাই প্রথম শতক তাঁর। কিন্তু সেঞ্চুরি করার পর ডানহাতি ব্যাটসম্যান যে উদযাপনটা করেছেন, সেটা অনেকের মতো দৃষ্টি এড়ায়নি অধিনায়ক মাশরাফিরও। আউট হয়ে ড্রেসিংরুমে ফেরার পথে সাব্বিরকে নিজের বিরক্তির কথাও জানিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

বুধবার সেঞ্চুরি ছোঁয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শূন্যে লাফ দেন সাব্বির। এরপর উইকেটে চুমু দেন মারকুটে এই ব্যাটসম্যান। এতটুকু পর্যন্ত থাকলে কোনো কথারই অবতারণা হতো না। কিন্তু সাব্বির এরপর ব্যাট উঁচিয়ে ধরেন আর হাতের আঙুল দিয়ে মুখবন্ধ করে দেওয়ার ইশারা করেন। তাঁর উদযাপনের এই অংশটুকুর অর্থ করলে দাঁড়ায়, ব্যাট হাতে জবাব দিয়ে যেন সব সমালোচকের মুখ বন্ধ দিলেন তিনি। অন্যভাবে বললে, অনেক বকবকানি হয়েছে আমাকে নিয়ে। এবার ব্যাট দিয়ে সব চুপসে দিলাম। মাশরাফির বিরক্তিটা সেখানেই।

সম্ভবত সমালোচকদের উদ্দেশে কিছুটা ব্যক্তিগত ক্ষোভ ঝাড়ার ইঙ্গিত পাওয়া যায় সাব্বিরের উদযাপনে। মাশরাফি তাই সরাসরি জিজ্ঞেস করেছেন এভাবে উদযাপন করার কারণ। অধিনায়ককে সাব্বির জানিয়েছেন, অনেকদিন পর ব্যাট কথা বলেছে, এটা বোঝাতে চেয়েছেন তিনি অমন উদযাপন ভঙ্গিতে। তবে ভবিষ্যতে এমন কিছু থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিয়ে ম্যাশ বলেছেন, ‘হয়তো প্রথম আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি বিধায় একটু বেশি রোমাঞ্চিত ছিল। কিন্তু আবেগ নিয়ন্ত্রণ করা শিখতে হবে ওকে। যতটুকু প্রমাণ করেছে ও সেটা এখানেই শেষ নয়, সামনে অনেক বড় ভবিষ্যৎ পড়ে আছে।’

উল্লেখ্য, শৃঙ্খলাভঙ্গের কারণে জাতীয় দলে নিষিদ্ধ ছিলেন সাব্বির রহমান। অধিনায়ক মাশরাফির পরোক্ষ সুপারিশে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই নিউজিল্যান্ড সফরের দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয় তাঁকে। ক্যারিয়ারে বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের জন্য আগেও বহু সমালোচনা পোহাতে হয়েছে সাব্বিরকে।

ট্যাগ: bdnewshour24 সাব্বির মাশরাফি