banglanewspaper

পুলওয়ামে জঙ্গি হামলার ঘটনার পর থেকে পুরো ভারতজুড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে কাশ্মীরিরা। পুলওয়ামের ওই হামলায় ৪৪ ভারতীয় সেনা নিহত হয়। ফলে গোট দেশে কাশ্মীরিদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখায় সাধারণ জনতা। অনেক জায়গায় কাশ্মীরিদের ওপর নির্যাতন করা হয়েছে।

ভূস্বর্গ বলে পরিচিত হিমালয় অঞ্চলটিতে সাম্প্রতিক হামলার পর বিভিন্ন রাজ্যে বাস করা কাশ্মীরিরা প্রতিশোধ থেকে বাঁচতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

একটি ছোট্ট কক্ষে একটানা দুই রাত ৩০ শিক্ষার্থীর সঙ্গে কাটিয়ে দিলেন জুনাইদ আইয়ুব রাদার। বাইরে সংঘবদ্ধ একদল লোক তাদের রক্ত চেয়ে অবিরাম স্লোগান দিচ্ছেন। অবশেষে এই যুবকসহ কক্ষের সবাই পালিয়ে বাঁচতে সক্ষম হন।

জুনাইদ বলেন, দেরাদুনের কাশ্মীরি লোকজন ভাড়া থাকেন এমন হোটেল, অ্যাপার্টমেন্টের বাইরে ক্ষুব্ধ লোকজন জড়ো হন। তারা আমাদের প্রতারক ও সন্ত্রাসী আখ্যা দিয়ে গুলি করে হত্যা করার স্লোগান দেন।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে তিনি বলেন, পালিয়ে কাশ্মীরের শ্রীনগরে চলে আসতে আমাদের চারদিন সময় লেগেছে। পুলিশ ও মুসলমান ব্যবসায়ীরা আমাদের পালাতে সহায়তা করেছে।

নিরাপদে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করার আগ পর্যন্ত ব্যবসায়ীরা নিজেদের বাড়িতে আমাদের আশ্রয় দেন। প্রতি বছর নিজ রাজ্যের বাইরে ১১ হাজার কাশ্মীরি শিক্ষার্থী ভারতের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হচ্ছেন। কিন্তু পুলওয়ামার ঘটনার পর সহিংস হামলার শিকার হওয়ার আতঙ্কে তারা দলে দলে নিজ রাজ্য কাশ্মীরে চলে যাচ্ছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 কাশ্মীরি