banglanewspaper

রাজধানীর চকবাজারের চুড়িহাট্টা এলাকায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে বিপুল ক্ষয়ক্ষতির পর সেই এলাকা থেকে কেমিক্যাল গুদাম অপসারণের কাজ শুরু করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেনশন।

শনিবার দুপুরে ঢাকা দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকন সাংবাদিকদের এই তথ্য জানিয়েছেন। অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ওয়াহেদ ম্যানশনের বেজমেন্টে থাকা কেমিক্যাল গুদাম সরানোর মধ্য দিয়ে এই অপসারণ কাজ শুরু হয় বলে জানান মেয়র।

এখনো যেসব বাড়ির মালিক কেমিক্যাল গুদাম অপসারণের উদ্যোগ নেননি তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান মেয়র। তিনি বলেন, ‘অগ্নিকাণ্ডের কয়েক দিন আগে পুরান ঢাকার কেমিক্যাল গুদাম অপসারণের উদ্যোগ নিয়েছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে এর দু’দিন পরই এত বড় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটলো।’

মেয়র জানান, পুরান ঢাকাকে সম্পূর্ণ কেমিক্যালমুক্ত করা হবে। কেমিক্যালের গুদাম অপসারণ শেষ না হওয়া পর্যন্ত সিটি করপোরেশনের অভিযান চলবে। এ কাজে সবার সহযোগিতা চান মেয়র। এই এলাকায় কোথাও কেমিক্যালের গুদাম থাকলে তা পুলিশকে অবহিত করতে স্থানীয়দের অনুরোধ করেন মেয়র।

২০১০ সালে নিমতলীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে শতাধিক মানুষ মারা যাওয়ার পর পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যালের গুদাম সরানোর সিদ্ধান্ত হয়। তবে স্থানীয়দের অনাগ্রহের কারণে গত নয় বছরেও সেই উদ্যোগ বাস্তবায়ন হয়নি। এর মধ্যেই গত বুধবার রাতে চকবাজারের চুড়িহাট্টায় ঘটে ভয়াবহ ঘটনা। দুই গাড়ির সংঘর্ষের পর সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৮০ জনের বেশি মারা যান।

অগ্নিদগ্ধ হন আরও অনেকে। এই ঘটনার পর পুরান ঢাকাকে কেমিক্যালমুক্ত করতে আবার নতুন করে সোচ্চার হয়েছে কর্তৃপক্ষ।

‘আগুনের সূত্রপাত গাড়ির সিলিন্ডার থেকে’

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের স্থল পরিদর্শন শেষে মেয়র বলেন, ‘একটি ভিডিও ফুটেজ পাওয়া গেছে। সেখানে দেখা গেছে গাড়ির গ্যাস সিলিন্ডার থেকে আগুনের সূত্রপাত। পুলিশও আমাকে জানিয়েছে গাড়ির সিলিন্ডার থেকেই আগুন লেগেছে।’

তবে মেয়র যখন সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন তখন এলাকাবাসী সিলিন্ডার বন্ধের দাবি করেন। মেয়র চলে যাওয়ার পর এলাকাবাসী গাড়িতে সিলিন্ডার বন্ধের দাবিতে মিছিলও করেছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 চুড়িহাট্টা কেমিক্যাল গুদাম