banglanewspaper

মার্চের ২৩ তারিখ মাঠে গড়াচ্ছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। জাঁকজমক পূর্ণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় টুর্নামেন্টটি। তবে এবারের আসরে ছেদ পড়তে যাচ্ছে সেই ধারাবাহিকতার। আইপিএলের দ্বাদশ আসরে থাকছে না কোন উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। তার বদলে অনুষ্ঠানের জন্য বরাদ্দ টাকা দেওয়া হবে কাশ্মীরে হামলায় নিহত সেনাদের পরিবারকে।

চলতি মাসের মাঝামাঝিতে (১৪ ফেব্রুয়ারি) ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় আত্মঘাতী হামলায় দেশটির আধাসামরিক বাহিনী সিআরপিএফ-এর ৪০ জন সদস্য নিহত হন। এই হামলার দায় স্বীকার করেছে জইশ-এ মোহাম্মদ। কিন্তু এই হামলার জন্য পাকিস্তানকে দায়ী করে দেশটির সাথে সব ধরনের সম্পর্ক ছিন্ন করছে ভারত।

এদিকে নিহত সেনা পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে ভারত সরকারসহ অনেক সংস্থাই। সেই দলের যোগ দিল ভারতের ক্রিকেট বোর্ড। শুক্রবার এক বৈঠকের পর বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ক্রিকেট বোর্ডটি সিদ্ধান্ত নেয়, আইপিএলের এবারের আসরে কোন উদ্বোধনী অনুষ্ঠান থাকবে না। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য বরাদ্দকৃত অর্থ নিহত সেনারে পরিবারকে দেওয়া হবে।

এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটের প্রশাসক কমিটির চেয়ারম্যান বিনোদ রাই বলেছেন, ‘আইপিএলের কোন উদ্বোধনী অনুষ্ঠান থাকবে না। অনুষ্ঠানের জন্য বরাদ্দকৃত বাজেট আমরা নিহত সেরা পরিবারকে দেবো।’

এবারের আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য কত টাকা বাজেট করা হয়েছিল তা জানা যায়নি। তবে গেল আসরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ১৫ কোটি রুপি ব্যয় করা হয়েছিল। ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, এবারও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য একই পরিমাণ বাজেট বরাদ্দ করা হয়েছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 আইপিএল