banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিবেদক: একুশে গ্রন্থমেলায় অভিনেতা ও নাট্যকার রেজাউর রহমান রিজভীর দুটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়েছে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি বিকেলে।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অবস্থিত মোড়ক উন্মোচন মঞ্চে রিজভীর লেখা গল্পগ্রন্থ ‘ভালোবেসে চলে যেতে নেই’ ও নাটকের গ্রন্থ ‘তিনটি টেলিভিশন নাটক’ শিরোনামের বই দুটির মোড়ক উন্মোচন করেন সিনিয়র অভিনেতা-মুক্তিযোদ্ধা খালেকুজ্জামান, অভিনেতা-নাট্যকার বৃন্দাবন দাস, অভিনেতা-উপস্থাপক খন্দকার ইসমাইল, অভিনেতা-নাট্যকার আজম খান, সিনিয়র সাংবাদিক ইব্রাহিম খলিল খোকন ও এমএ মজিদ, দোয়েল প্রকাশনীর পক্ষে তাপস কর্মকার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি গবেষক আমির হাসনাতসহ আরো অনেকে। বক্তারা এসময় বই দুটির সাফল্য কামনা করেন।

একুশে গ্রন্থমেলায় দোয়েল প্রকাশনীর ২০৫ নম্বর স্টলে বই দুটি পাওয়া যাচ্ছে। বই দুটির প্রচ্ছদ করেছেন অপূর্ব খন্দকার। ২৫% ছাড়ে প্রতিটি বইয়ের মূল্য ১৫০ টাকা।

বই দুটি প্রসঙ্গে রেজাউর রহমান রিজভী বলেন, গত বছরের একুশে গ্রন্থমেলায় প্রকাশিত হয় আমার লেখা প্রথম গল্পগ্রন্থ ‘আরেক বসন্তে’। বইটিতে ৮টি ছোট গল্প সন্নিবেশিত ছিল। এবারের ‘ভালোবেসে চলে যেতে নেই’ গল্পগ্রন্থটিতেও ৮টি গল্প রয়েছে।

তবে চমক হিসেবে উল্লেখ করা যেতে পারে যে, এবারের ৮টি গল্পই হলো ‘আরেক বসন্তে’ গল্পগ্রন্থের ৮টি গল্পের সিক্যুয়াল। তবে প্রতিটি গল্পেই পুরোপুরি নতুনত্ব রাখা হয়েছে। যাতে কোন পাঠক ‘আরেক বসন্তে’ এর গল্পগুলো না পড়লেও ‘ভালোবেসে চলে যেতে নেই’ এর গল্পগুলো পড়তে গিয়ে হোঁচট না খান। 

এছাড়া ‘তিনটি টেলিভিশন নাটক’ প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, মঞ্চ ও টেলিভিশন নাটকের মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। একুশে বইমেলাতে মঞ্চনাটকের বই সীমিত পরিসরে হলেও প্রতি বছরই নিয়মিত প্রকাশিত হয়। তবে সে হিসেবে টেলিভিশন নাটকের বই খুব বেশি পাওয়া যায় না। এই বইটিতে আমি আমার লেখা তিনটি টেলিভিশন নাটক রেখেছি। আমি মনে করি এই বইটি টেলিভিশন নাটক লিখতে উৎসাহীদের গাইড হিসেবে কাজ করবে। এছাড়া বর্তমান সময়ের টেলিভিশন নাটকগুলো লেখার সম্যখ ধারণাও তারা এই বইটি থেকে পাবেন। 

প্রসঙ্গত, রিজভীর লেখা অন্যান্য গ্রন্থগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘আমার গানের খাতা’ (গীতিকবিতা), ‘আরেক বসন্তে’ (গল্পগ্রন্থ), ‘ভালোবাসার অবাক চোখ’ (কবিতা) ও ‘সত্যি! সোরাই’ (গল্প সংকলন)।

ট্যাগ: bdnewshour24 গ্রন্থমেলা