banglanewspaper

বউ পেটানোর মামলায় হিরো আলমকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ হলে সর্বোচ্চ শাস্তি ২ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে হিরো আলমের।

বৃহস্পতিবার দুপুর বারোটার দিকে বগুড়ার অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে হাজির করলে বিচারক আহমেদ শাহরিয়ার তারিক হিরো আলমকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে বুধবার যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধরের ঘটনায় করা মামলায় গ্রেপ্তার হন হিরো আলম।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, যৌতুকের দাবিতে প্রায় স্ত্রী সুমি বেগমকে মারধর করতেন তিনি। গত ৫ ফেব্রুয়ারি ২ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী মারধর করেন। আহত হয়ে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হন তার স্ত্রী।

তবে বুধবার হিরো আলম জানান, কিছু খারাপ কর্মকাণ্ডের জন্য স্ত্রীকে দুটি থাপ্পড় মেরেছিলেন তিনি। এ কারণে তার শ্বশুর তাকে শারীরিকভাবে প্রহারও করেছেন।

পরে তিনি সদর থানায় অভিযোগ দিলেও সেটি মামলা হিসেবে গ্রহণ না করে পুলিশ তার শ্বশুরের মামলা আমলে নিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে।

সদর থানার অফিসার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম বদিউজ্জামান জানান, হিরো আলমের অভিযোগ মিথ্যা থাকায় তার মামলাগ্রহণ করা হয়নি।

হিরো আলমের বিরুদ্ধে দেয়া মামলার সত্যতা প্রমাণ হলে সর্বোচ্চ শাস্তি ২ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে বলেও জানান ওসি।

ট্যাগ: bdnewshour24 হিরো আলম