banglanewspaper

মজিবুর রহমান, কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি: নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় রাজনীতি অঙ্গণে উজ্জলমূখ সাবেক ছাত্রনেতা মোফাজ্জল হোসেন ভূইঁয়া ভূইয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে পুনঃরায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হওয়ায় নেতাকর্মী,সমর্থক ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

১০ মার্চ রোববার অনুষ্ঠিত হয় কেন্দুয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›দ্ধীতা করেন। এর মধ্যে মোফাজ্জল হোসেন ভূইঁয়া (চশমা) প্রতীক নিয়ে ৪৬৫৩২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্ধী মামুনুল কবীর খান পেয়েছেন ৩৮৯৩০ ভোট। গত চতুর্থ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ-বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীকে পিছনে ফেলে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছিলেন জনপ্রিয় এই ছাত্রনেতা। পুনঃরায় নির্বাচিত মোফাজ্জল হোসেন ভূইঁয়া অল্প বয়সেই জয় করে নিয়েছেন অগণিত মানুষের হৃদয়। সকল শ্রেণি-পেশা মানুষ তাকে আপনভাবে। তৃর্ণমূলের বঞ্চিত ও ত্যাগী নেতাকর্মীদের ভরসাস্থল হয়ে উঠেছেন তিনি। ছাত্র রাজনীতিতে সফল মোফাজ্জল হোসেন ভাইস চেয়ারম্যান পদে দ্বায়িত্ব পালন করে সফলতা কুঁড়িয়েছেন ব্যাপক।

তার সত্যতা ও কর্মদক্ষতার স্বাক্ষর হিসেবে তিনি অর্জন করেছেন ২০১৫ সালে ডেভেলপমেন্ট রির্সাচ ফাউন্ডেশনের (ডি.আর.এফ) বিশ্ব শান্তি পদক, ২০১৬ সালে ডি.আর.এফ কর্তৃক নির্বাচিত বিভাগের শ্রেষ্ঠ ৩ ভাইস চেয়ারম্যানের একজন হয়েছিলেন তিনি।

একই বছর বিশ্ব বাংলা ও বাঙ্গালী পরিষদের দানবীর হাজী মুহাম্মদ মহসীন স্মৃতি পদক-২০১৮, ইউনাইটেড মুভমেন্ট হিউম্যান রাইসের মানবাধিকার শান্তি পদক-২০১৬,জীবনের জন্য জীবন ফাউন্ডেশনের মাদার তেরেসা স্বর্ণ পদক-২০১৬, ডিপ্রাইভড পিপলস্ রাইটস প্রিজার্ভেশন সোসাইটির মহাত্মা গান্দী শাইনিং পার্সোনালিটি এ্যাওয়ার্ড-২০১৬, জীবনের জন্য জীবন ফাউন্ডেশনের মাদার তেরেসা শাইনিং পার্সোনালিটি এ্যাওয়ার্ড-২০১৭,আলোকিত বাংলার মূখ ফাউন্ডেশনের মাদার তেরেসা স্বর্ণপদক-২০১৭ ও  শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক গবেষণা পরিষদের শেরে বাংলা শাইনিং পার্সোনালিটি এ্যাওয়ার্ড-২০১৭। এছাড়া তিনি উপজেলা পরিষদ চত্বর এলাকায় প্রতিষ্ঠিত আর্দশ শিশু বিতান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও এ.কে.এম স্পোটিং ক্লাবের সভাপতি হিসেবে দ্বায়িত্ব পালন করছেন। সদ্য অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার ক্ষেত্রে তার ব্যক্তি ইমেজই মূখ্য বিষয় কাজ করেছে। মোফাজ্জল হোসেন ভূইঁয়া কেন্দুয়া পৌর শহরের চন্দগাতি গ্রামের বাবা জালাল উদ্দিন ভুইঁয়া ও মা মনোয়ার খাতুনের কোল আলোকিত করে ১৯৭৮ সালে ১৬ই জুন জন্মগ্রহণ হয়। আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান হওয়ায় ছাত্রজীবনে সক্রিয় হন রাজনীতিতে।

১৯৯৫ সালে উপজেলা শাখ ছাত্রলীগে প্রথম সদস্য পদে নির্বাচিত হয়ে ছাত্রলীগে নেতৃত্ব দিতে শুরু করেন। ১৯৯৭ সালে কেন্দুয়া ডিগ্রী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক,১৯৯৮ সালে উপজেলা ছাত্রলীগে স্কুল ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক,২০০৫ সালে উপজেলা ছাত্রলীগে যুগ্ন আহবায়ক এবং ২০১০ সালে উপজেলা ছাত্রলীগ শাখায় সভাপতি নির্বাচিত হয়ে সফল সংগঠক হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। আর এই সফলতাকে কাজে লাগিয়ে পর পর দুইবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন। গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে জিতে তার সফলতা ও জনপ্রিয়তা আরো প্রসার ঘটেছে। ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছেন তার কর্মী-সমর্থকদের। উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করেও চাকুরীতে না গিয়ে জনসেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছি, জনসেবা করে বাচঁতে চাই।

আমার এক ভাই কেন্দুয়া পৌরসভা চার বারের কমিশনার,অন্য ভাইয়েরাও রাজনীতিতে সক্রিয় থেকে সমাজসেবা কাজে জড়িত রয়েছে। মোফাজ্জল হোসেন ভুইঁয়া বলেন,রাজনীতি ময়দানে মামলা-হামলাকে প্রতিরোধ করে এবং প্রতিযোগিতায় জয়ী হয়ে আমার রাজনৈতিক শুভাঙ্খী এবং এলাকার সাধারণ মানুষে ভালবাসায় আজ আমি পুনঃরায় নির্বাচিত হয়েছি। আমিও তাদের ভালবাসা অক্ষুণ্ণ রাখার চেষ্টা করব সব সময়। আমাকে পুনঃরায় নির্বাচিত করায় আমার রাজনৈতিক শুভাঙ্খী,সমর্থক এবং এলাকার সাধারণ ভোটাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞা প্রকাশ করছি।

ট্যাগ: bdnewshour24 কেন্দুয়া