banglanewspaper

মাহমুদুর রহমান, ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর উপজেলার ভোমরা ডাঙ্গা গ্রামের মাদ্রাসা ছাত্র মিরাজ হত্যা মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত।মামলায় অপর ২ আসামীকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

দন্ডিতরা হলেন, বাগেরহাট জেলার মোড়লগঞ্জ উপজেলার পুটিখালী গ্রামের মৃত কাছেম আলী শেখের ছেলে আতাহার আলী শেখ ওরফে আতিক হুজুর ও ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার ভোমরাডাঙা গ্রামের আনারুল ইসলামের ছেলে হাবিবুর রহমান।

মঙ্গলবার দুপুরে ঝিনাইদহের অতিরিক্ত দায়রা জজ ১ম আদালতের বিচারক এম জি আযম এ দন্ডাদেশ প্রদাণ করেন।

মামলার বিবরণের জানা যায়, ২০১৫ সালের ১৪ মার্চ কোটচাঁদপুর উপজেলার ভোমরাডাঙ্গা গ্রামের মোহর আলীর ছেলে মাদ্রাসাছাত্র মিরাজ হোসেন গ্রামের একটি মাদ্রাসায় ওয়াজ মাফফিল শুনতে যায়। পরদিন সকালে গ্রামের মাঠে ভূট্টা ক্ষেতে তার ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের চাচা জিন্দার আলী বাদি হয়ে কোটচাঁদপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

পুলিশ ৪ জনকে আসামী করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। দীর্ঘ বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে মঙ্গলবার বিজ্ঞ আদালত আসামী আতাহার আলী ওরফে আতিক হুজুর ও হাবিবুর রহমানকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করে। জরিমানা অনাদায়ে আরও ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেওয়া হয়। মামলার অন্যদুই আসামী নাসির সরকার ও ইউসুফ আলীকে খালাস দেওয়া হয়।

ট্যাগ: bdnewshour24 ঝিনাইদহ মাদ্রাসা ছাত্র হত্যা