banglanewspaper

দেশের সর্বোচ্চ আদালতে আইন পেশায় নিয়োজিত আইনজীবীদের সংগঠন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ভোটগ্রহণ শুরু হচ্ছে আজ বুধবার। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

দুই দিনব্যাপী নির্বাচনের ভোট চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। দুই দিনই সকাল ১০টা থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে। মাঝে এক ঘণ্টা বিরতি থাকবে।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি থেকে পাওয়া তথ্য অনুসারে, এ নির্বাচনে ১৪টি পদের বিপরীতে ৩৩ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আর নির্বাচনে ৮ হাজার ৮৮ জন আইনজীবী তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সম্পাদক এ ওয়াই মশিউজ্জামান।

নির্বাচনে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেল এবং বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেলের মধ্যে। তবে উভয় প্যানেলেরই প্রতিশ্রুতি নির্বাচিত হলে উচ্চ আদালতের আইনজীবীদের উন্নয়নে কাজ করবেন তারা।

নির্বাচনে সরকার সমর্থক আইনজীবীদের সংগঠন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের প্যানেল (সাদা প্যানেল) থেকে সমিতির সাবেক সম্পাদক এ এম আমিন উদ্দিন সভাপতি পদে এবং আবদুন নুর দুলাল সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অন্যদিকে বিএনপি-জামায়াত সমর্থক আইনজীবীদের সংগঠন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেল (নীল প্যানেল) থেকে সমিতির সাবেক সভাপতি ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জে মোহাম্মদ আলী সভাপতি পদে এবং বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও সমিতির পর পর ছয়বার নির্বাচিত সম্পাদক এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ওই দুই প্যানেলের বাইরে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন এ বি এম ওয়ালিউর রহমান খান ও ড. ইউনুছ আলী আকন্দ। সম্পাদক পদে আইনজীবী মনির হোসেন দাস প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

উল্লেখ্য, প্রতিবছর সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি-সম্পাদকসহ ১৪টি পদে নির্বাচন হয়। ২০১৮-১৯ সালের নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াতপন্থী আইনজীবীরা নিরঙ্কুশ জয় পান। সভাপতি, সম্পাদকসহ ১০টি পদে জয় লাভ করে এই প্যানেল।

অন্যদিকে, আওয়ামী লীগ-সমর্থিত আইনজীবীদের মোর্চা সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ (সাদা প্যানেল) সমর্থিত প্রার্থীরা চারটি পদে জয় পেয়েছিল।

ট্যাগ: সুপ্রিম কোর্ট