banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুরে শ্রীপুরে জমি সংক্রান্তের বিরোধের জেরে মামা-মামীকে দাড়ালো রাম দা দিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে গুরুতর জখম করার অভিযোগ উঠছে ভাগ্নের বিরুদ্ধে। 

বুধবার সকালে উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের শিমলাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আলহাজ¦ আফাজ উদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম মিন্টু বাদী হয়ে বুধবার রাতে শ্রীপুর থানায় ৩জন কে অভিযুক্ত করে অভিযোগ করেছে। অভিযুক্তরা হলো একই এলাকার শাহজাহান মিয়া (৩৮),মনিয়া আক্তার (৩৫), সোহাগ মিয়া (২০)।

গুরুতর আহত মামা নজরুল ইসলাম মিন্টু ও মামী চম্পা আক্তার কে প্রথমে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরে অবস্থা অবন্নতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রের্ফাড করেছে।

থানায় অভিযোগ ও স্থানীয়রা জানায়, ২০ র্মাচ বুধবার সকালে আফাজ উদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম মিন্টু ও তার স্ত্রী চম্পা আক্তারকে তাদের ভাগ্নে শাহজাহান (৩৮), ভাগ্নের স্ত্রী মনিয়া আক্তার ও ছেলে সোহাগ মিয়া জমির বিরোধের জেরে কথা কাটাকাটি এক পর্যায়ে ধারালো রামদা দিয়ে হাত, পা ও মাথায় কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। পরে তাদের আর্তচিৎকারে  এলাকাবাসী উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

আহত নজরুল ইসলাম মিন্টু জানায়, তার ভাগ্নে শাহজাহান এলাকার চিহ্নিত ভূমিদস্যু ও সন্ত্রাসী। সে আমার পৈত্রিক সম্পত্তি দখল করেছে। আমার জমি ফেরত চাইলে আমাকে পরিবারসহ হত্যার হুমকি দেয়। ঘটনার দিন সকালে সামান্য কথা কাটাকাটিতেই সে তার স্ত্রী সন্তান নিয়ে আমাকে ও আমার স্ত্রীকে হত্যার উদ্দেশ্যে প্রথমে রড ও লোহার লাঠি দিয়ে পিটিয়েছে পরে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়েছে। আমার স্ত্রীর হাতে মোট ১১৩টি সিলি করতে হয়েছে।  ঘটনার পর থেকে শাহজাহান তার স্ত্রী মনিয়া ও তার ছেলে সোহাগ মিয়া পলাতক রয়েছে।

শ্রীপুর থানার চকপাড়া পুলিশ ক্যাম্পের ইনর্চাজ এসআই নাজমুল সাকীব জানান, ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। ঘটনার পর থেকেই আসামীরা পলাতক রয়েছে। মামলার প্রক্রিয়াধীন,আসামীদেরকে দ্রুত গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। 

ট্যাগ: bdnewshour24 মামী