banglanewspaper

পার্লামেন্টে ভোটাভুটির সময় লুকিয়ে চকলেট খাচ্ছিলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। ভেবেছিলেন কারও নজরে পড়বেন না। কিন্তু তার ধারণা ভুল হয়েছে। চকলেট খাওয়ার সেই ঘটনা নজরে পড়েছে কয়েকজনের। এরপরই ক্ষমা চাইতে হয় তাকে।

ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, ট্রুডোর চকলেট খাওয়া প্রথম নজরে আসে কনজার্ভেটিভ সংসদ সদস্য স্কট রিডের। এরপরই তিনি স্পিকারের কাছে অভিযোগ করেন।
অভিযোগের প্রেক্ষিতে ভরা পার্লামেন্টে সবার সামনে উঠে দাঁড়িয়ে ঘটনার জন্য ক্ষমা চান কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।

কারণ, পার্লামেন্ট হাউসে বসে লুকিয়ে চকলেট বা অন্য কোনও কিছু খাওয়া আইনত নিষিদ্ধ। আর এই নিয়ম লঙ্ঘনের কারণেই তিনি স্পিকারের কাছে ক্ষমা চান।

এসময় স্পিকারের উদ্দেশে ট্রুডো বলেন, আসলে আমার কাছে একটা চকলেট বার ছিল। সেটাই খাচ্ছিলাম। এজন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী।

ট্যাগ: bdnewshour24 সংসদে লুকিয়ে চকলে ট্রুডো