banglanewspaper

‘বাংলাদেশের যেসব মডেল, সেলেব আর অভিনেত্রীর রোজগার শরীর বেঁচে’! এটি একটি কাণ্ডজ্ঞানহীন অপেশাদার গণমাধ্যমের সংবাদের শিরোনাম! ভিক্তিহীন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এই সংবাদটি ছেপেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিতর্কিত গণমাধ্যম ‘এই সময়’। নানান রকম গুজব ও অপেশাদারিত্বের চরম নমুনা বহুবার প্রকাশ করেছে ‘এই সময়’। যার কারণে পত্রিকাটি নিজের দেশের পাঠকদের কাছেই নিন্দিত।

তবে বাংলাদেশ নিয়ে ‘এই সময়’র দৃষ্টিভঙ্গি বাড়াবরই বেশ নেতিবাচক। বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়েও মনগড়া তথ্যে সংবাদ প্রকাশ করে উসকানি দিয়েছে উগ্রবাদের। এবারও ফের নিজেদের উগ্রতার প্রমাণ দিলেন তারা।

এবার তারা বেছে নিল বাংলাদেশের শোবিজের স্বনামধন্য একঝাঁক তারকাকে। প্রভা, নোভা, ইভা রহমান, চৈতী, বিন্দু, তিন্নি, মিম, শখ, সারিকা, মিলা, মেহজাবীনের মতো প্রতিষ্ঠিত তারকাদের ‘দেহ ব্যবসায়ী’ বলে, শিরোনাম করে সংবাদ প্রকাশ করেছে। 

প্রকাশের পরই সংবাদের প্রতিবাদে নিন্দা জানিয়েছেন বাংলাদেশের শোবিজ সংশ্লিষ্টরা।

পত্রিকাটি উল্লিখিত তারকাদের নাম দিয়ে তাদের অনলাইন ভার্সনে লিখেছে, এরা বিভিন্ন সময় সেক্স স্ক্যান্ডালে জড়িয়েছেন। যদিও তার কোনো প্রমাণ দিতে পারেনি। বিভিন্ন সময় ইউটিউবে, অনলাইনে ছড়ানো নানা গুজব-গুঞ্জনকে সূত্র করেই শিরোনামে তারকাদের ‘দেহ ব্যবসায়ী’ বলে দাবি করা হয়েছে।

সংবাদে আরও দাবি করা হয়েছে, সেক্স স্ক্যান্ডালের শিকার হয়ে এসব তারকার অনেকেই ক্যারিয়ার থেকে ছিটকে পড়েছেন। যার আদৌ কোনো ভিত্তি নেই। লাক্স তারকা বিন্দু, অভিনেত্রী তিন্নি, মডেল চৈতি ব্যতীত সবাই এখনো সগৌরবে শোবিজে কাজ করে যাচ্ছেন।

এদিকে এই সংবাদে নাম আছে এমন দুই-তিনজন তারকার সঙ্গে এ ব্যাপারে মন্তব্য জানতে চাইলে তারা ঘৃণা প্রকাশ করেন। 

তারা এই সংবাদকে আমাদের দেশীয় সংস্কৃতিকে হেয় করার জন্য ‘বিদেশি পত্রিকার উদ্দেশ্যমূলক সংবাদ’ বলে মন্তব্য করেছেন। সেইসঙ্গে একটা দেশের জনপ্রিয় তারকাদের নিয়ে এমন ‘নোংরা’ শিরোনামে

ট্যাগ: bdnewshour24 দেহ ব্যবসায়ী