banglanewspaper

দুই ছাত্রলীগ নেতার প্রতারণার ফাঁদে পড়ে মাগুরা আদর্শ ডিগ্রী কলেজের ৫৭ জন শিক্ষার্থী এবারের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেনি। ওই ছাত্রদের ফরম পূরণ বাবদ প্রায় ৫লাখ টাকা নিয়ে সটকে পড়েছে কলেজ ছাত্রলীগের ওই দুই নেতা। কলেজ অধ্যক্ষের প্রচেষ্টায় শেষ মুহূর্তে ৬ শিক্ষার্থী   পরিক্ষার আগের দিনে ফরম পুরনের সুযোগ পেলেও বাকিরা এ বছরের পরীক্ষায় অংশ নিতে পারছেন না। এ ঘটনায় ওই কলেজের ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা করেছে জেলা ছাত্রলীগ।

জানা গেছে, ওই কলেজের এইচ এস সির টেস্ট পরিক্ষায় অকৃতকার্য ছাত্রছাত্রীসহ কিছু নিয়মিত ও আনিয়মিতদের ফরম ফিলআপ করিয়ে দেয়ার কথা বলে ৫৭জন ছাত্রছাত্রীর কাছ থেকে ৮ থেকে ১০ হাজার টাকা করে প্রায় ৫লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে গা ঢাকা দেয় কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নাজমুল হুদা অমি এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আমিন হোসেন । এদিকে পরিক্ষা শুরুর আগের দিনে ওই সকল  শিক্ষার্থীদের নামে প্রবেশ পত্র না আসায় ওই পরিক্ষার্থীদের অনেকে এসে  বিষয়টি অধ্যক্ষ সূর্য কান্ত বিশ্বাস কে জানান।  ঘটনা শুনে হতবাক হন তিনি, পরে তার একান্ত প্রচেষ্টার কারনে শেষ মুহূর্তে নিয়মিত ৬ ছাত্র কে পরিক্ষার আগের দিন যশোর বোর্ড হতে ফরম পুরন ও পরিক্ষায় অংশগ্রহনের ব্যাবস্থা করে দিতে সক্ষম হন তিনি।। এ ঘটনা জানাজানি হলে জেলা ছাত্রলীগ ওই কলেজের কমিটি বিলুপ্ত করে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।  

এ বিষয়ে অধ্যক্ষ সূর্য কান্ত বিশ্বাস, জানান এ বছর এইস এস সি চেষ্ট পরিক্ষায় অকৃতকার্য দের পরিক্ষায় অংশগ্রহনের সুযোগ না দেয়ার সুবাদে অনেকেই বহিরাগতদের প্রতারনার ফাঁদে জড়িয়ে পড়েছেন। পরিক্ষার আগের দিন প্রবেশ পত্র না পেয়ে কিছু ছাত্র তার কাছে এসে জানালে বিষয়টি নজরে আসে। শেষ মুহূর্তে নিয়মিত ৪ শিক্ষারথীসহ ৬ জন কে বোর্ডে গিয়ে ফরম পুরন ও পরিক্ষায় অংশগ্রহনের ব্যাবস্থা করতে সক্ষম হন বলে জানান । বাকিদের এ বছর পরিক্ষায় অংশ গ্রহনের আর কোন সুযোগ নেই। ১ম পরিক্ষার দিনেও অনেক ছাত্র অভিভাবক একই অভিযোগ নিয়ে এলেও এখন  আর তেমন  কিছুই করার নেই বলে দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি। এ ব্যাপারে দোষীদের বিরুদ্ধে কলেজ কমিটির  সভায় সিদ্ধান্ত ক্রমে প্রশাসনিক  ভাবে ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও জানালেন তিনি। তিনি। ছাত্র।

এ ব্যাপারে মাগুরা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মেহেদি হাসান রুবেল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মাগুরা আদর্শ কলেজের কিছু শিক্ষার্থির কাছ থেকে পরীক্ষার ফরম পূরণের নামে অর্থ আদায়ের ঘটনা ছাত্রলীগের ভাবমূর্তিকে ক্ষুন্ন করেছে। এটি দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের শামিল। যে কারণে জরুরী সভা আহ্‌বান করে আদর্শ কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত করা হয়েছে।

এদিকে জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক আলি হোসেন মুক্তা বলেন, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্যে পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাছাড়াও কলেজ কর্তৃপক্ষ কিংবা ক্ষতিগ্রস্ত' শিক্ষার্থিরা বিষয়টি নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিতে চাইলে সেক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সহায়তা দেয়া হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24 মাগুরা ছাত্রলীগ