banglanewspaper

ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় এবং কিছু পর্যবেক্ষণের কারণে তোপের মুখে পদত্যাগ করে যুক্তরাষ্ট্রে চলে যাওয়া সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহার বিরুদ্ধে আবারো জুডিশিয়াল ক্যু চেষ্টার অভিযোগ করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

বুধবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী একথা জানিয়ে তাকে (এস কে সিনহা) বিচারের আওতায় আনার বিষয়ে বলেন, ‘ওয়েট অ্যান্ড সি’।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবারও সচিবালয়ে এসকে সিনহার বিরুদ্ধে জুডিশিয়াল ক্যু চেষ্টার অভিযোগ তোলেন আইনমন্ত্রী।

পৌন তিন বছর প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পালন করা বিচারপতি এসকে সিনহার অবসরে যাওয়ার কথা ছিল ২০১৮ সালের ৩১ জানুয়ারি। ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় এবং কিছু পর্যবেক্ষণের কারণে ক্ষমতাসীনদের তোপের মুখে ২০১৭ সালের অক্টোবরের শুরুতে তিনি ছুটিতে যান। আর কার্যকাল শেষ হওয়ার ৮১ দিন আগে তিনি পদত্যাগ করেন। ২০১৭ সালের ১৩ অক্টেবর তিনি বিদেশে চলে যান।

এস কে সিনহার বিরুদ্ধে জুডিশিয়াল ক্যু চেষ্টার অভিযোগ করে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘জনগণের শক্তি বাড়লে আর কেউ এমন চেষ্টা করতে পারবেন না।’

জুডিশিয়াল ক্যু চেষ্টা করায় এস কে সিনহাকে বিচারের আওতায় আনা হবে কিনা জানতে চাইলে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘ওয়েট অ্যান্ড সি।’

সারাদেশের আদালতে মামলা জট কমাতে আপস-মীমাংসার মাধ্যমে মামলাগুলো নিষ্পত্তি করতে চান জানিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘এ ব্যাপারে সুপ্রিম কোর্ট বিচারকদের অনুশাসন দিতে পারে।’

এছাড়া রাজধানীতে অবৈধ ভবন সংশ্লিষ্ট মামলা নিষ্পত্তিতে গণপূর্ত মন্ত্রণালয়কে আইন মন্ত্রণালয় সহায়তা করবে বলেও জানান আইনমন্ত্রী।

এর আগে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাস আইনমন্ত্রীর দপ্তরে তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

ভারতীয় হাইকমিশনারের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘ভারত আমাদের ঘনিষ্ঠ বন্ধু। তাদের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক এখন অনেক ভালো। দ্বিপাক্ষিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।’

ট্যাগ: bdnewshour24 আইনমন্ত্রী