banglanewspaper

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন বলেছেন, ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক ঐতিহাসিক। সময়ের আবর্তনে এ সম্পর্ক পারস্পরিক বিশ্বাসের ওপর ভর করে পরিপক্কতা লাভ করেছে।

ভারতের নবনিযুক্ত হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলী বুধবার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাতে এলে তিনি একথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ সময় ভারতের নবনিযুক্ত হাইকমিশনারকে বাংলাদেশে স্বাগত জানান। সাক্ষাৎকালে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের সার্বিক বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

ড. মোমেন বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার দীর্ঘদিনের সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বলেন, দুই দেশের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে স্থল সীমানা, সাগরের সীমানাসহ অনেক বড় বড় সমস্যার সমাধান হয়েছে। পৃথিবীর মধ্যে এটা আদর্শ মডেল হিসেবে চিত্রিত হতে পারে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী গত ৭ থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি জয়েন্ট কনসালটেশন কমিশনে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গে বৈঠকের বিষয়ে স্মরণ করেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন, বাংলাদেশ ও ভারতের এ সম্পর্ক আরো গভীর ও উষ্ণ হবে।

ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন নবনিযুক্ত হাইকমিশনারের সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করেন এবং বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে তাঁর কার্যকালীন সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

এ সময় রিভা গাঙ্গুলী ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের একটি পত্র বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ড. মোমেনের কাছে হস্তান্তর করেন।

পত্রে সুষমা স্বরাজ বংলাদেশ-ভারতের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে ‘সত্যিকারের সোনালী অধ্যায়’ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, শেখ হাসিনার রাষ্ট্রনায়কত্বের কারণে এটা সম্ভব হয়েছে এবং বাংলাদেশ-ভারতের অংশীদারিত্ব আরো সম্প্রসারিত হচ্ছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 পররাষ্ট্রমন্ত্রী