banglanewspaper

ফরহাদ খান, নড়াইল: নড়াইল সদরের ধোন্দা গ্রামের কৃষক আকমল শেখকে (৫০) অপহরণের অভিযোগে লুৎফর রহমানকে (৩৮) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (৮ এপ্রিল) দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার)। লুৎফর পঞ্চগড়ের বোদা থানার পাঁচপির মেলাগ্রামের আছির উদ্দিনের ছেলে। 

পুলিশ সুপার জানান, ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণের দাবিতে নড়াইল সদর উপজেলার ধোন্দা গ্রামের আকমল শেখ অপহরণ মামলার আসামি লুৎফরকে গত রোববার (৭ এপ্রিল) পঞ্চগড়ের নিজ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। এ অপহরণের ঘটনায় আটজনের সম্পৃক্ততার তথ্য-প্রমাণ পাওয়া গেছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। 

জানা যায়, দুরসম্পর্কের আত্মীয়তার সূত্র ধরে নড়াইলের ধোন্দা গ্রামের কৃষক আকমল শেখের বাড়িতে পাঁচ বছর ধরে আসা-যাওয়া করেন অপহরণের মূলহোতা আনিস (৪৫)। পরিচয়ের শুরুতেই আনিস বাড়ির ঠিকানা দেয় রংপুর। পাঁচ বছরের মধ্যে আকমলদের বাড়িতে আনিস বেড়াতে এসেছেন অনেকবার। এছাড়া মোবাইল ফোনেও যোগাযোগ হত তাদের। 

আকমল আনিসদের এলাকায় বেড়াতে গেলে গত ৩০ মার্চ লালমনিরহাট থেকে বাড়িতে যাওয়ার কথা বলে আকমলকে মোটরসাইকেলে উঠিয়ে পঞ্চগড় নিয়ে যায় আনিস। পরে একটি বাড়িতে বেঁধে রেখে আনিস ও তার লোকজন আকমলের পরিবারের কাছে ২০ লাখ টাকা দাবি করে। প্রাথমিক পর্যায়ে গত ৩০ মার্চ সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিকাশের মাধ্যমে আনিসের কাছে ৫০ হাজার টাকা পাঠান আকমলের পরিবার।

এরপর বিষয়টি পুলিশকে জানালে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন আকমলকে উদ্ধারে তৎপর হন। গত ৩১ মার্চ পঞ্চগড়ের বোদা থানার বৈরতি গ্রাম থেকে আকমলকে উদ্ধার করে নড়াইল পুলিশ।

ট্যাগ: bdnewshour24 নড়াইল