banglanewspaper

পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুর শহরের খানাকুনিয়ারীতে যৌতুকের দাবীতে লিজা আক্তার (১৯) নামে এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। নিহত লিজা আক্তার কদমতলা গ্রামের জয়নাল সেখ ও আলেয়া বেগমের মেয়ে। 

লিজা আক্তারের চাচা জালাল সেখ জানান, দীর্ঘদিন ধরে লিজাকে তার শ্বাশুরী রহিমা বেগম যৌতুকের জন্য বিভিন্ন চাপ দিয়ে আসছিলো সোমবার বিকেলে তারা লিজাকে অসুস্থ্য বলে হাসপাতালে নিয়ে এসে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় তবে আমাদের ধারনা লিজার শ্বাশুরী রহিমা বেগম ও ঘটক হামিদ সেখ মিলে তাকে হত্যা করে ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে দেয় পরে গলায় দড়ি দিয়েছে বলে হাসপাতালে নিয়ে আসে। এ ঘটনায় লিজার স্বামী রাজু খান ও শ্বাশুরী রহিমা বেগম পলাতক রয়েছে। 

পিরোজপুর সদর হাসপাতালের আরএমও ডা. ননী গোপাল জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। লাশ পোষ্টমর্টেম করা হয়েছে রিপোর্ট পাওয়ার পরে বিস্তারিত জানানো যাবে। 
 
পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম জিয়াউল হক জানান, বিষয়টি জানার সাথে সাথে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনানুক ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24 পিরোজপুর