banglanewspaper

ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলার আসামি তার সহপাঠী মো. শামীমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন ফেনীর একটি আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শরাফউদ্দিন আহমেদ এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার মামলায় সন্দেহভাজন আসামি শামীম। তিনি সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলিম পরীক্ষার্থী ছিলেন। গত সোমবার সন্ধ্যায় সোনাগাজীর চরচান্দিয়া গ্রাম থেকে শামীমকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে শামীমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গত মঙ্গলবার সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিল পুলিশ। বুধবার তাকে আদালতে নেয়া হলেও বিচারক রিমান্ডের শুনানি একদিন পিছিয়ে দেন। এছাড়া গতকাল নুসরাতকে হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার তার আরেক সহপাঠী কামরুন্নাহার মণিকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পিবিআই।

নুসরাত জাহান রাফি সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার আলিমের পরীক্ষার্থী ছিলেন। মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলার বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ এনেছিলেন তিনি। নুসরাতের মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে ২৭ মার্চ সোনাগাজী থানায় মামলা করেন। এরপর অধ্যক্ষকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মামলা তুলে নিতে বিভিন্নভাবে নুসরাতের পরিবারকে হুমকি দেওয়া হচ্ছিল।

গত ৬ এপ্রিল সকাল ৯টার দিকে আলিম পর্যায়ের আরবি প্রথমপত্রের পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে যান নুসরাত। এ সময় তাকে কৌশলে একটি ভবনের ছাদে ডেকে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। সেখানে তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে দিয়ে আগুন দেওয়া হয়। গুরুতর দগ্ধ নুসরাত ১০ এপ্রিল রাত সাড়ে ৯টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে মারা যান। তার এই মৃত্যু দেশবাসীকে নাড়িয়ে দেয়।

চাঞ্চল্যকর এই হত্যা মামলায় এখন পর্যন্ত এজাহারভুক্ত আট আসামিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে পিবিআই। এছাড়া এই ঘটনার সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে আরও ১০ জন গ্রেপ্তার রয়েছে। তারা ফেনী কারাগারে রয়েছে। তাদের মধ্যে শাহাদাত হোসেন শামীম ও নুর উদ্দিন দায় স্বীকার করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 নুসরাত