banglanewspaper

সদ্য স্ত্রীকে মারপিট ও যৌতুকের মামলায় জেল থেকে মুক্ত হয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের আলোচিত সেলিব্রেটি হিরো আলম। সেখান থেকে মুক্ত হয়েই বগুড়া জেলখানা নিয়ে দিলেন চাঞ্চল্যকর তথ্য। 

হিরো আলম সাংবাদিকদের বলেন, বগুড়া জেলখানা এখন মাদকাসক্তদের দখলে। জেলখানার ভেতরে পাওয়া যায় সব ধরনের মাদক। এখনকি মাদক দিয়ে অর্থের বিনিময় হয়। বিড়ি, সিগারেট, গাঁজা দিয়ে সব কাজ করে নেওয়া যায়।

তিনি আরও বলেন, জেলাখানায় প্রতিদিন যে দুই হাজারের মতো হাজতি কয়েদি থাকে। এর মধ্যে পনেরো’শ ই মাদক সংশ্লিষ্ট মামলায়। আর এসব আসামি জেলখানার ভেতরই মাদকের ব্যবহার ও ব্যবসা করে যাচ্ছে। এছাড়া দুর্নীতি রয়েছে টাকার বিনিময়ে কাগারের ভেতর হাসপাতালে জায়গা করে দেওয়া। প্রতিমাসে হাসপাতালের জন্য তিন হাজার টাকা দিতে হয়, একজন হাজতি কিংবা কয়েদিকে।

তবে হিরো আলম জেলখানার ভালো দিকও তুলে ধরেন। তিনি জানান, খাবার মান আগের চেয়ে ভালো হয়েছে। এছাড়া টাকা দিলে ক্যানটিন থেকে খাবার পাওয়া যায় বলেও জানান।                                     

বগুড়ার সেলিবেটি হিরো আলমের বিরুদ্ধে গত ৬ মার্চ তার শ্বশুর সাইফুল ইসলাম তার মেয়েকে নির্যাতনের অভিযোগ এনে বগুড়া সদর থানায় মামলা করেন। ৭ মার্চ তাকে পুলিশ গ্রেফতার করে এবং ১৮ এপ্রিল তার জামিন হয়।

ট্যাগ: bdnewshour24 হিরো আলম