banglanewspaper

ভারতে লোকসভা নির্বাচনকে ঘিরে রাজনীতিবিদদের মধ্যে কাদাছোঁড়াছুঁড়ি চলছেই। শনিবার ( ২০ এপ্রিল) পশ্চিমবঙ্গের বালুরঘাটে জনসভায় ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পশ্চিমবঙ্গ মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রী মমতা ব্যানার্জি কটাক্ষ করে বলেছেন, ভোটের প্রচারে বিদেশিদের ভাড়া করে আনছেন মমতা দিদি। আগের দিন এখানেই এক জনসভায় বক্তব্য দিয়ে গেছেন মমতা। মোদি ও অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলিকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, অরুণ জেটলি হল চাওয়ালা প্রধানমন্ত্রীর কেটলি অর্থমন্ত্রী!

ভাষণে মোদি আগের মতোই মমতাকে ‘উন্নয়নের স্পিডব্রেকার দিদি’ আখ্যায়িত করেন। মমতাকে আক্রমণ করতে গিয়ে বাংলাদেশি অভিনেতা ফেরদৌসের নির্বাচনী প্রচারে নামার প্রসঙ্গ তোলেন। 

এসময় তিনি বলেন, ‘এটা আমাদের জন্য লজ্জার যে প্রতিবেশী দেশ থেকে আসা মানুষ তৃণমূলের জন্য প্রচার চালাচ্ছে। সংখ্যালঘু ভোটারদের টানতে এই কৌশল নিয়েছে তারা।’ 

মোদি আরও বলেন, ‘চৌকিদার এবার নির্বাচনের পর সবকিছুর হিসাব নেবে। হিসাব নেবে এই বাংলায় যে অত্যাচার করেছে তারও। তিনি বলেন, এবার বেআইনি অনুপ্রবেশকারীদের হিসাব দিন দিদি।’

কলকাতার বাংলা চলচ্চিত্রের একজন অভিনেতা ফেরদৌস। সম্প্রতি তিনি সেখানে ক্ষমতাসীন তৃণমূলের এক প্রার্থীর পক্ষে প্রচারে নেমে ব্যাপক সমালোচনায় পড়েন। ওই ঘটনার পর ক্ষমতাসীন বিজেপির নালিশে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ফেরদৌসের ভিসা বাতিল করে তাকে দেশ ছাড়ার নির্দেশ দেয়। দেশে ফিরে এসে ফেরদৌস এ ঘটনার জন্য ভুল স্বীকার করে ইতোমধ্যে সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন।

তা সত্ত্বেও মমতাকে এ নিয়ে সমালোচনা করতে ছাড়েননি মোদি। এদিনও মমতার শাসনকে তিনি ‘হুমকি, লুটতরাজ ও দুর্নীতির শাসন’ বলে আখ্যায়িত করেন। মোদি আশা করছেন, এবার পশ্চিমবঙ্গের মানুষ মমতাকে হটাতে বিজেপির পক্ষেই রায় দেবে। ছেড়ে কথা বলছেন না মমতাও। মোদিকে তিনি বলছেন ‘এক্সপায়ারি বাবু’। এবার তাকে ‘ন্যাশনাল বিদায় সার্টিফিকেট’ দেয়া হবে বলেও জানিয়ে রেখেছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24