banglanewspaper

ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় আসন্ন বিশ্বকাপের আগে ক্রিকেটের জীবন্ত কিংবদন্তি ভারতের শচীন টেন্ডুলকারের পরামর্শ চান পাকিস্তান দলের ওপেনার আবিদ আলী। বিশ্বকাপের জন্য প্রথমবারের মতো দলে ডাক পাওয়া এই নতুন সেনশেসন এই মেগা ইভেন্টে নিজের জাত চেনাতে চান।

ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিকভাবে রান করার পর গত মাসে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে পাকিস্তান ওয়ানডে দলে ডাক পান আবিদ আলী। নিজের অভিষেক ম্যাচেই সেঞ্চুরি করে বিশ্বকাপ দলেও জায়গা করে নিয়েছেন এই ব্যাটসম্যান। শৈশব থেকেই টেন্ডুলকারকে অনুসরণ করছেন তিনি। এবার মাস্টার ব্লাস্টারের কাছ থেকে ব্যাটিং পরামর্শ চান আবিদ।

ভারত-পাকিস্তান সম্পর্কটা ভালো না হলেও পরামর্শ চাইলে টেন্ডুলকার তাকে ফেরাবেন না এবং বিষয়টি ইতিবাচক হিসেবেই গ্রহণ করবেন বলে মনে করছেন এই পাকিস্তানি ওপেনার।

আবিদ আলী বলেছেন, ‘এটা আমার ইচ্ছা এবং আশা করছি আমি টেন্ডুলকারের সঙ্গে দেখা করতে পারব।’

‘অবশ্যই, আমি তার সঙ্গে আলিঙ্গন করতে চাই। আমি নিশ্চিত যে, সকল গ্রেট খেলোয়াড়রা যেভাবে তরুণদের সঙ্গে দেখা করে আমিও তার সঙ্গে দেখা করতে পারব, তিনি ফিরিয়ে দেবেন না। আমি নিশ্চিত, ক্রিকেটীয় কোনো বিষয়ে কিছু জানতে চাইলে শচীনের কাছ থেকে ইতিবাচক জবাব পাব।’

আবিদ আরো বলেন, ‘টেন্ডুলকারের সঙ্গে সাক্ষাতের দিনটি হবে আমার জীবনের সেরা দিন। কেননা তিনি সেরা ব্যাটসম্যানদের একজন ছিলেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভিভ রিচার্ডসও একজন গ্রেট খেলোয়াড় ছিলেন। সুতরাং আমি সব গ্রেট খেলোয়াড়দের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে এবং তাদের কাছ থেকে শিখতে চাই।’

উচ্চতা এবং ব্যাটিং স্টাইলের দিক থেকে আবিদ অনেকটাই টেন্ডুলকারের মতো। তবে ক্রিকেটের সকল রেকর্ড নিজের করে নেয়া লিটল মাস্টারের রেকর্ড স্পর্শ করতে আবিদকে অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে।
আবিদ স্বদেশী ইনজামাম-উল-হক এবং মোহাম্মদ ইউসুফের সঙ্গে টেন্ডুলকারের তুলনা করেন।

তিনি বলেন, ‘সত্যিকারভাবে ক্যারিয়ারের প্রথম দিন থেকে আমি শচীনের টেকনিক ফলো করছি এবং তাকে দেখে তার মতো খেলার চেষ্টা করছি। আমাদের ইনজামাম ও ইউসুফের ন্যায় তিনিও একজন গ্রেট খেলোয়াড় ছিলেন।’

‘আমি তাদের ভালো বিষয়গুলো গ্রহণ করি এবং খারাপ যেকোনো কিছু পরিহার করি। তার সঙ্গে দেখা করতে পারলে আমি কথা বলা এবং মানসিক ও কৌঁশলগত কিছু বিষয়ে কিছু পরামর্শ চাইব, যা আমার ব্যাটিংয়ের উন্নতির জন্য সহায়ক হবে।’

একজন ভালো ব্যাটসম্যানের স্বীকৃতি পেতে তিনি সবকিছু করবেন বলেও জানান আবিদ।

২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়া ভারতীয় ব্যাটসম্যান সম্পর্কে আবিদ বলেন, ‘টেন্ডুলকারের রেকর্ড অবিশ্বাস্য।’

তিনি আরো বলেন, ‘পাকিস্তানের হয়ে যখনই খেলার সুযোগ পাব আমি নিজের সেরাটা উজাড় করে দিব এবং নিজকে প্রতিষ্ঠিত করব।’

ট্যাগ: bdnewshour24 টেন্ডুলকার