banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ অবশেষে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার নিজমাওনা গ্রামে সন্তানদের অবহেলায় মাটির ঘরের বারান্দায়  পড়ে থাকা সেই বৃদ্ধ মাহমুদ আলীর(৯০) পাশে দাঁড়ালেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ভারপ্রাপ্ত) ফাতেমাতুজ জোহরা। 

২০ মে সোমবার বিকেলে  তিনি বৃদ্ধের বাড়িতে গিয়ে তাকে অর্থ সহায়তা দেন। এছাড়াও বয়স্ক ভাতার কার্ডের যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহন করেন। এসময় তার সাথে ছিলেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মুঞ্জরুল ইসলাম।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অবহেলার শিকার ওই বৃদ্ধের ৪ সন্তানের মধ্যে সবাই প্রতিষ্ঠিত। প্রত্যেকেরই নিজস্ব বাড়ি থাকলেও তাদের বাবাকে বার্ধক্যজনিত রোগ-শোকে মাটির ঘরের বারান্দায়  পড়ে থাকতে হচ্ছে। তার নিত্য সঙ্গী তার বয়স্ক স্ত্রী ও পোকামাকড়।  খাবার জোগাতে স্ত্রী মাঝে মাঝে ভিক্ষা করেন। এ বিষয়ে বৃদ্ধের সন্তানরা গণমাধ্যমে কথা বলতে রাজি হননি।

শ্রীপুর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) ফাতেমাতুজ জোহরা বিডিনিউজ আওয়ার ২৪-কে বলেন,অনলাইন পত্রিকার মাধ্যমে তিনি বৃদ্ধের খবর পেয়ে বৃদ্ধের বাড়িতে যান। বয়োবৃদ্ধ মানুষটিকে দেখে যে কারো চোখে পানি চলে আসবে। তার জামাকাপড়, বিছানাপত্র ও খাদ্যের জন্য অর্থ সহায়তা করা হয়েছে। তার বয়স্ক ভাতারও ব্যবস্থা করা হচ্ছে। অবহেলা করায় তার সন্তানদের বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। উপজেলা সমাজসেবা অফিসারকে নিয়ে বৃদ্ধের বাড়ীতে যান তিনি। ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বারকে সেখানে পাঠিয়েছিলেন বলেও জানান তিনি।

তিনি আরো জানান, বৃদ্ধের অবস্থা  উন্নতি হয়েছে। মেঝের পরিবর্তে একটি চৌকিতে শুয়ানো হয়েছে। তাৎক্ষনিক ভাবে কিছু আর্থিক অনুদান দেয়া হয়। এছাড়াও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের UHFPO মহোদয়ের মাধ্যমে তার চিকিৎসা শুরু  করা হয়েছে। স্থানীয় মেম্বারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। 

উল্লেখ্য, ১৮ মে বিডিনিউজ আওয়ার ২৪-এ "আর কতো বয়স হলে বয়স্ক ভাতার কার্ড পাবে শ্রীপুরের মাহমুদ! " শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদের পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ও উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি ফাতেমাতুজ জোহরা ওই বৃদ্ধের খোঁজ নিয়ে দায়িত্ব গ্রহন করেন। 

ট্যাগ: bdnewshour24 শ্রীপুর