banglanewspaper

তামিম ইকবাল। বাংলাদেশের নির্ভরতার প্রতীক। তিনি যে ম্যাচে জ্বলে ওঠেন সেই ম্যাচ নিশ্চিত জয় লাভ করে। ওপেনিং ব্যাটসম্যান হয়ে মাঠে নামলেও বিশ্বকাপে এখনও নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি এই ওপেনার। আজ বিশ্বকাপে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচ। এ ম্যাচে তার একটাই ক্ষুধা ‘রান চাই’।

তামিমের মেধাপ্রজ্ঞা নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। পরিসংখ্যানকে মানদন্ড ধরলে তিনিই বাংলাদেশের সব সময়ের সেরা ব্যাটসম্যান। দেশের সফলতম এক নম্বর ওপেনার তিনি। বিশেষ করে ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের পর থেকে এই বিশ্বকাপ পর্যন্ত ৪৮ মাসে তামিমের পরিসংখ্যান অসাধারণ। এ সময়ে ৫২টি একদিনের খেলায় তামিমের ব্যাট থেকে এসেছে ২৫১১ রান।

বাংলাদেশের আর কোন ব্যাটসম্যান এই সময়ে ওয়ানডেতে এত রান করতে পারেননি। বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে শেষ চার বছরে সর্বাধিক রান করা তামিম বিশ্বের সফলতম ১৩ নম্বর ব্যাটসম্যানও। এটাই শেষ নয়, এই চার বছরে তামিমের ব্যাট থেকে এসেছে ৭ শতক ও ১৮টি অর্ধশতক। তার ম্যাচ পিছু গড়ও ঈর্ষনীয়, ৫৭.০৬।

তবে এবার বিশ্বকাপে প্রথম তিন খেলায় দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড আর ইংল্যান্ডের সঙ্গে তামিম বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। তার ব্যাট কথা বলেনি। একটি হাফ সেঞ্চুরিও নেই তার। তাই তাকে নিয়ে চলছে হৈচৈ, তোলপাড়।

কেউ কেউ পারলে তামিমকে বাদ দিয়ে অন্য কাউকে খেলানোর পক্ষে। তবে যে যাই বলুন, তামিম নিজেও ভাল খেলার অপেক্ষায় আছেন। নিজেকে ফিরে পাবার দৃঢ় প্রত্যয়ে তিনি আজ মাঠে নামবেন।

অধিনায়ক মাশরাফিও তামিমকে নিয়ে চিন্তিত নন। তার ব্যাখ্যা, ‘তামিম গত চার বছরে আমাদের সেরা ব্যাটিং পারফরমার। দলকে অসাধারণ সার্ভিস দিয়েছে। হয়ত কোন কারণে এবার বিশ্বকাপে তিন ম্যাচে রান পায়নি। তাতে কি? কোন আসরে এমন হতেই পারে। তামিম সাধ্যমত চেষ্টা করছে রানে ফিরতে। সমস্যা কোথায়, তা খুঁজে বের করে সমাধানের চেষ্টাও করছে সে প্রাণপন।’

মাশরাফি আরও বলেন, ‘আমি বলবো, তামিমের ভাল খেলে রান করা নির্ভর করবে ভাগ্যের ওপর। ভাগ্য সহায় থাকলে তার চেস্টা সফল হবে। ঠিকই রান পাবে। আর ভাগ্য ফেবার না করলে শত চেষ্টায়ও কাজ হবে না।’

ট্যাগ: bdnewshour24 তামিম