banglanewspaper

টানা ১১ বারের মতো বাজেট উপস্থাপনের সময় জাতীয় সংসদে উপস্থিত থাকবেন আবুল মাল আবদুল মুহিত। তবে এবার আর অর্থমন্ত্রী হিসেবে বাজেট উপস্থাপন করবেন না তিনি বরং অতিথি হিসেবে গ্যালারিতে বসে শুনবেন ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেট।

এরইমধ্যে টানা ১০টি বাজেট উপস্থাপন করে এক অনন্য রেকর্ড সৃষ্টি করেছেন সাবেক এই অর্থমন্ত্রী। তিনি ছাড়া বাংলাদেশের আর কোনো অর্থমন্ত্রী টানা ১০টি বাজেট দিতে পারেননি। এছাড়াও জাতীয় সংসদে সর্বোচ্চ ১২টি বাজেট উপস্থাপন করে যৌথভাবে শীর্ষে রয়েছেন মুহিত। একই সংখ্যক বাজেট উপস্থাপন করেছেন প্রয়াত অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান।

আবুল মাল আব্দুল মুহিত যে বাজেট উপস্থাপনের সময় সংসদে উপস্থিত থাকবেন তা সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন তার ব্যক্তিগত সহাকারী কিশোর ভট্টাচার্য জনি।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুপুরে জনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘স্যার সংসদে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তিনি সংসদের গ্যালারিতে বসে বাজেট শুনবেন।’ যদি শারীরিক কোনো সমস্যা না হয় তাহলে বাজেট অধিবেশন শুরুর আগেই আবুল মাল আব্দুল মুহিত সংসদ ভবনে পৌঁছে যাবেন বলেও জানান তিনি।

সদ্য বিদায়ী অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত জাতীয় পার্টি ও আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে অর্থমন্ত্রী হিসেবে ১২টি বাজেট উপস্থাপন করেছেন। এর মধ্যে জাতীয় পার্টির এরশাদ সরকারের আমলে দুইটি এবং আওয়ামী লীগের শেখ হাসিনা সরকারের আমলে টানা ১০টি বাজেট উপস্থাপন করেন। তিনি প্রথম বাজেট উপস্থাপন করেন ১৯৮২ সালের ৩০ জুন। ওই বাজেটের আকার ছিল ৪ হাজার ৭৩৮ কোটি টাকা। সর্বশেষ ২০১৮ সালের ৭ জুন কার ১২তম এবং দেশের ৪৮তম বাজেট উপস্থাপন করেন। যার আকার ছিল ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা।

১৯৮২ সালে প্রথম বাজেটের পর ১৯৮৩ সালে মুহিত ২০৮৩-৮৪ অর্থবছরের জন্য তার দ্বিতীয় বাজেট উপস্থাপন করেন। ওই বাজেটের আকার ছিল ৫ হাজার ৮৯৬ কোটি টাকা। তবে সবশেষ যে বাজেট তিনি দিয়ে গেছেন তার আকার ছিল ৪ লাখ ২৬৬ কোটি টাকা।

এছাড়া ২০০৯, ২০১৪ পরপর দুই দফায় শেখ হাসিনার নেতৃতাধীন আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসেন। এর মধ্যে প্রথম দুই মেয়াদে অর্থাৎ ২০০৯ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত টানা ১০ বছর অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৯ সালের ১১ জুন (৩৯তম) অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ২০০৯-১০ অর্থবছরের ১ লাখ ১৩ হাজার ১৭০ কোটি টাকার বাজেট পেশ করেন। এই বাজেটটি বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ১ লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যায়। এরপর তিনি ২০১৩ সালে (৪৩তম) ২০১৩-১৪ অর্থ বছরের জন্য ২ লাখ ২২ হাজার ৪৯১ কোটি টাকা, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ৩ লাখ ৪০ হাজার ৬০৫ কোটি টাকা, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বাজেট চার লাখ ২৬৬ কোটি টাকার ঘোষণা করেন।

অন্যদিকে ২০১৮ সালে শেখ হাসিনা সরকার তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর আবুল মাল আবদুল মুহিতের পরিবর্তে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পান আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো বাজেট উপস্থাপন করবেন। এটি আওয়ামী লীগ সরকারের ২১তম এবং টানা ১১তম বাজেট।

ট্যাগ: bdnewshour24 অর্থমন্ত্রী