banglanewspaper

মানিলন্ডারিং মামলায় মানবপাচারকারী চক্রের মূলহোতা জামাল হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) অনুমোদন করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

মঙ্গলবার তার বিরুদ্ধে দুদকের করা এই মামলায় অভিযোগপত্রের অনুমোদন দেওয়া হয়। আগামী দুয়েক দিনের মধ্যে এই অভিযোগপত্র কক্সবাজার আদালতে দাখিল করা হবে।

সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইমের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শারমিন জাহান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দুর্নীতি দমন কমিশনের উপসহকারী পরিচালক সাইদুজ্জামান বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে পাঠানো অ্যানালাইসিস রিপোর্ট পেয়ে সরেজমিনে অনুসন্ধান করেন। তিনি জামাল হোসেনের মানবপাচার সম্পৃক্ত অপরাধের প্রমাণ পান। মানবপাচার করে অবৈধভাবে অর্জিত অর্থ জামাল ইসলামী ব্যাংক টেকনাফ শাখায় জমা করেন।

২০১৪ সালের ২৩ মে থেকে ২০১৫ সালের ১৪ মে পর্যন্ত সর্বমোট এক কোটি ৮৩ লাখ টাকা জমা করেন এবং বিভিন্ন তারিখে চেকের মাধ্যমে ওই টাকা উত্তোলন করেন।

এ ঘটনায় ২০১৬ সালের ১৫ জুলাই টেকনাফ মডেল থানায়  একটি মামলা হয়। পরে আসামির বিরুদ্ধে মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের মামলা তদন্ত শুরু করে সিআইডি।

এরপর জামাল হোসেনকে টেকনাফ থানার শাহপরীরদ্বীপ থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ট্যাগ: Bdnewshour24 সিআইডি