banglanewspaper

সৈয়দা কুমকুম খায়ের

....................................................

 

মাগো তোমার জীবনের,

শেষ বেলাতে;

মুছো কেন জল,

শাড়ির আঁচলেতে?

 

শৈশবে মাঠে চষে,

মুছতে গিয়ে ঘাম শাড়িতে;

আঁচল খানা রাখতে ভিজিয়ে,

চোখেরই জলেতে।

 

মাগো! তোমার আঁচল খানা, 

আদোও কেন ভেজা?

বিধাতা কি তোমার অদৃষ্টে,

দিয়েছে শুধুই সাজা?

 

বাবাকে নিয়ে করিলো বিধবা,

দাদাকে নিয়ে সন্তানহারা!

বাকশক্তিহীন আমি তোমার ডাকে, 

নাহি পারি দিতে সাড়া!

 

জন্মের পরে দেখিনি বাবারে, 

অন্ন জুগিয়েছো নিজেই কষ্ট করে ;

বাবার  ভিটাটুকু আগলে রেখে, 

অনাহারে অর্ধহারে দিয়েছো শিক্ষা মোদের। 

 

যৌতুকের অভাবে দিদির কপালে, 

হলোনা যে আর সুখ!

শশুর-শাশুড়ি রাখিলো বন্দী,

দেখোনা মেয়েরমুখ।

 

সুখের আসায় করোনি জীবন,

দুঃখকে করেছো বরন।

দুঃখের মাঝে তবু হাসি মুখে,

বিধাতারে কেন কর স্বরণ?

 

বিধাতা তোমায় চায়না হাসাতে,

     তবু  কেন মিছে হাসো?

মিছে হাসি দিয়ে বিধাতারে তুমি,

      কেন সন্তুষ্ট রাখো?

ট্যাগ: bdnewshour24 সৈয়দা কুমকুম খায়ের