banglanewspaper

বার্মিংহামের এজবাস্টনে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে টস জিতে ব্যাট করতে নেমেছে অস্ট্রেলিয়া। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১০ ওভারে ৩ উইকেটে তাদের রান ২৭।

প্রথম ওভারে ৪ রান দেন ক্রিস ওকস। দ্বিতীয় ওভারে ডেভিড ওয়ার্নারের উইকেট। এরপর ডানহাতি পেসার তার দ্বিতীয় উইকেট পেলেন পিটার হ্যান্ডসকম্বকে ফিরিয়ে। তার গতিময় বোলিংয়ে মাত্র ১৪ রানে তৃতীয় উইকেট হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ওকসের চতুর্থ ওভারের প্রথম বলে হ্যান্ডসকম্ব বোল্ড হন ১২ বলে ৪ রান করে।

শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারালো অজিরা

মাত্র ১০ রানে দুই ওপেনারকে হারালো অস্ট্রেলিয়া। ক্রিস ওকসের প্রথম ওভারে ৪ রান করার পরই হোঁচট খেয়েছে অস্ট্রেলিয়া। দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে উইকেট হারিয়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। জোফরা আর্চারের বলে এলবিডাব্লিউ হন অ্যারন ফিঞ্চ। আম্পায়ারের আউটের সিদ্ধান্তে রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি অজি অধিনায়ক। প্রথম বলে রানের খাতা না খুলে বিদায় নেন তিনি। এরপর ওকসের শিকার হন ডেভিড ওয়ার্নার। জনি বেয়ারস্টোকে ক্যাচ দিয়ে ১১ বলে ৯ রান করে আউট হন তিনি।

ফাইনালের লক্ষ্যে টস জিতে ব্যাটিংয়ে অজিরা

ফাইনালে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে কে? এই প্রশ্নের উত্তর জানা যাবে আর কয়েক ঘণ্টা পরই। বার্মিংহামের এজবাস্টনে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া। টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছে অজিরা।

১৯৯২ সালের পর থেকে কখনও নকআউটের গেরো কাটাতে পারেনি ইংল্যান্ড। ২৭ বছর পর তারা উঠেছে সেমিফাইনালে। এবার সেই ব্যর্থতার বৃত্ত ভেঙে ফাইনালে যাওয়ার পথ খুঁজছে স্বাগতিকরা। বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে তিনটায় দ্বিতীয় সেমিফাইনালে অজিদের সামনে দাঁড়াবে তারা। ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করছে বিটিভি, গাজী টিভি, মাছরাঙা টেলিভিশন ও স্টার স্পোর্টস ১।

অস্ট্রেলিয়ার একাদশে একটি পরিবর্তন এসেছে। ইনজুরিতে উসমান খাজা নেই, তার জায়গায় ঢুকেছেন পিটার হ্যান্ডসকম্ব।

ভারত-পাকিস্তানের মতোই ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচকে ঘিরে উত্তেজনা থাকে ক্রিকেট ভক্তদের। এজবাস্টনেও সেই উত্তেজনায় ভাসতে অপেক্ষায় দর্শকরা। এই আসরে রাউন্ড রবিন লিগে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৬৪ রানের দাপুটে জয় পায় অজিরা। লর্ডসে পাওয়া ওই জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়েই স্বাগতিকদের বিপক্ষে মাঠে নামবে অ্যারন ফিঞ্চের দল।

এই অস্ট্রেলিয়ার কাছেই টানা হারে খাদের কিনারায় ছিল ইংল্যান্ড। তবে ভারত ও নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে চমৎকার প্রত্যাবর্তনে জায়গা করে নেয় শেষ চারে। এই দুটি জয়ের আত্মবিশ্বাস সঙ্গে করে পুরোনো ইতিহাস বদলাতে চায় ইংলিশরা।

বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত দুই দলের দেখা হয়েছে ৮ বার। যেখানে অস্ট্রেলিয়া ৬ ম্যাচ জিতে এগিয়ে, আর ইংল্যান্ডের জয় মাত্র দুটি। সবমিলিয়ে ১৪৮টি ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়া ৮২টি ম্যাচে জয়, আর ইংল্যান্ড ৬১ বার। দুটি ম্যাচ টাই ও তিনটি পরিত্যক্ত হয়েছে।

ইংল্যান্ড একাদশ: এউইন মরগান (অধিনায়ক), জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, জো রুট, বেন স্টোকস, জস বাটলার (উইকেটরক্ষক), ক্রিস ওকস, লিয়াম প্লাঙ্কেট, আদিল রশিদ, জোফরা আর্চার, মার্ক উড।

অস্ট্রেলিয়া একাদশ: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভেন স্মিথ, পিটার হ্যান্ডসকম্ব, মার্কাস স্টোইনিস, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেটরক্ষক), প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, নাথান লায়ন, জেসন বেহরেনডর্ফ।

ট্যাগ: bdnewshour24 অস্ট্রেলিয়া