banglanewspaper

ফাউন্ডেশন একটি প্রসাধনী পণ্য যা ত্বকের খুঁত ঢাকতে ও কাঙ্ক্ষিত স্কিন টোন পেতে সাহায্য করে। কেননা মেকআপে ফাউন্ডেশন খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। ফাউন্ডেশন ব্যবহার করলে মুখের উজ্জ্বলতা বা দীপ্তি বৃদ্ধি পায়।

কিন্তু এই ফাউন্ডেশনের সঠিক ব্যবহার না জানলে পড়তে হয় অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে। এর শেড যখন হালকা বা গাঢ় হয় তখন দেখতে বেমানান লাগে। তাই ত্বকের ধরণ অনুযায়ী সঠিক ফাউন্ডেশন ব্যবহার করা জরুরী। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক ফাউন্ডেশন ব্যবহারের সঠিক পদ্ধতি সম্পর্কে।

প্রস্তুতি: প্রথমে মুখ ভালো করে ক্লিঞ্জার দিয়ে ধুয়ে নিন। ত্বকের জন্য উপযোগী এমন কোন ময়েশ্চারাইজার লাগান। বৃত্তাকারে ম্যাসাজের মাধ্যমে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে ৫ মিনিট অপেক্ষা করুন।

প্রাইমার: তারপর মুখে প্রাইমার লাগান যাতে মুখের ত্বকের সব ছিদ্র ও ফাইন লাইনগুলো ভরাট হয়। প্রাইমার মুখের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে, ফাউন্ডেশনের জন্য মসৃণ ভিত্তি তৈরি করে এবং দাগ দূর করে।

ফাউন্ডেশন: তারপরেই আসে ফাউন্ডেশন লাগানোর পর্ব। আঙ্গুলের মাথায় ফাউন্ডেশন নিয়ে সারা মুখে ফোঁটা ফোঁটা করে লাগান। তারপর একটি ভেজা স্পঞ্জ দিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করুন ফাউন্ডেশন। ভেজা স্পঞ্জ ব্যবহার করার ফলে ত্বকে প্রয়োজনীয় ফাউন্ডেশন লাগার পর অতিরিক্ত ফাউন্ডেশন শুষে নিবে স্পঞ্জ।

কন্সিলার: ফাউন্ডেশন লাগানোর পরে মুখের দাগের জায়গা গুলোতে যেমন- চোখের নীচে, নাকের দুই পাশে, চিবুকের উপরে ইত্যাদি স্থানে কন্সিলার লাগান। ফাউন্ডেশনের পরে কন্সিলার লাগানোর ক্ষেত্রে কম কন্সিলার ব্যবহার করলেই চলে। কন্সিলার হালকা ভাবে লাগাবেন, খুব বেশি ঘষাঘষি করবেন না। এরপর একটি ব্রাশ দিয়ে হালকা ভাবে পাউডার লাগিয়ে নিন অথবা সেটিং স্প্রে প্রয়োগ করে নিতে পারেন। ব্যস হয়ে গেলো।

টিপস

১. ফাউন্ডেশন গোলাপি ও হলুদ এই দুই টোনের হয়। তাই কেনার আগে ত্বক বুঝে কিনুন।

২. ফাউন্ডেশন কেনার সময় বেশিরভাগ মানুষ যে ভুলটা করে থাকেন তা হচ্ছে, ফাউন্ডেশন হাতে লাগিয়ে এর রঙ যাচাই করেন। কিন্তু আমাদের মুখের ত্বকের চেয়ে হাতের ত্বক ভিন্ন ধরণের হয়। ফাউন্ডেশন যেহেতু একটি দামী পণ্য তাই এটি কেনার সময় যেনো ভুল না হয়, তাই হাতে নয় চোয়ালে লাগিয়ে এর শেড পরীক্ষা করুন।

৩. তৈলাক্ত ত্বকের অধিকারীদের ম্যাট ফাউন্ডেশন ব্যবহার করা উচিৎ। না হলে দিন শেষে মুখের তেল বের হয়ে ফাউন্ডেশনকে চকচকে করে তুলবে। 

ট্যাগ: bdnewshour24 ফাউন্ডেশন ব্যবহার