banglanewspaper

ফরহাদ খান, নড়াইল : নড়াইলের নড়াগাতি থানার কান্দুরী গ্রামে দুইজনকে হত্যার ঘটনায় দোষীদের গ্রেফতারসহ বিচার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে কলাবাড়িয়া ইউনিয়নবাসীর উদ্যোগে কান্দুরী গ্রামে এসব কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়। মানববন্ধনে নারী-পুরুষসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। 

এ সময় বক্তব্য রাখেন হত্যা মামলার বাদী আইচপাড়ার জসিম মোল্যা, নিহত ইমান আলীর বোন সালমা বেগম, নিহত আবুল বাশার রুকুর মা ও স্ত্রী।      

বক্তারা বলেন, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার, পূর্বশত্রুতা ও জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ২০১৮ সালের ৬ ডিসেম্বর ভোরে নড়াইলের নড়াগাতি থানার কলাবাড়িয়া ইউনিয়নের কান্দুরী গ্রামে ধানকাটার সময় ইমান আলী মোল্যা (৩৫) ও আবুল বাশার রুকু মোল্যাকে (৩৪) প্রতিপক্ষের ইলিয়াস মোল্যা ও গোলাম তালুকদারসহ তার লোকজন নির্মম ভাবে কুপিয়ে এবং গুলি করে হত্যা করে। এছাড়া শটগানের গুলিতে ও কুপিয়ে অন্তত পাঁচজনকে গুরুতর আহত করা হয়। ওই দু’জনকে হত্যাসহ আহতের ঘটনায় ১০৫ জনকে আসামি করে নড়াগাতি থানায় মামলা দায়ের করেন জসিম মোল্যা। এর মধ্যে ৯৭ জন জামিনে আছেন বলে জানান তিনি (জসিম)।

মামলার বাদী অভিযোগ করেন, আসামি নাজমুল হুদা, জাহিদ শেখসহ অন্যরা এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও তাদের গ্রেফতার করছে না পুলিশ। হত্যাকান্ডের সাত মাস অতিবাহিত হলেও তাদের গ্রেফতার করা হয়নি। এমনকি মামলা তুলে নিতে বাদী জসিম মোল্যাকে বিভিন্ন সময়ে হুমকি দেয়া হয়েছে। গত ১৩ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কান্দুরী গ্রামের তিতু মোল্যার বাড়ির কাছে জসিমের পথরোধ করে ওই গ্রামের রাবু মোল্যা, মিজান চৌধুরী, অকিদুর চৌধুরী, আলিম মোল্যা, জিয়ার মোল্যা, জুবায়ের মোল্যা, সজিব মোল্যা, সাজিদ তালুকদার ও সাকিব তালুকদার তাকে (জসিম) রামদাসহ ধারালো অস্ত্র দিয়ে মামলা তুলে নিতে হুমকি দেয়। মামলা না তুললে মেরে ফেলার কথাও বলে তারা। এ ঘটনায় জসিম গত ১৮ এপ্রিল নড়াগাতি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। 

এদিকে এ হত্যা মামলার আসামি কান্দুরী গ্রামের ইলিয়াস মোল্যা (৫০), গোলাম তালুকদার (৫৫), মিজান চৌধুরী (৩৫), সবিজ মোল্যা (৩০) ও রউফ মোল্যা (৪৫) জামিনে বেরিয়ে এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমনকি বাদীপক্ষের লোকজনকে বিভিন্ন সময়ে হুমকি দিয়েছে। 

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নড়াগাতি থানার এসআই খান মাহবুব জানান, গতকাল (মঙ্গলবার) আদালতে এ হত্যা  মামলার অভিযোগপত্র দেয়া হয়েছে। কয়জনের নামে অভিযোগপত্র দেয়া হয়েছে, জানতে চায়লে তিনি বলেন; এ মুহূর্তে  সংখ্যা মনে নেই। আর আসামিদের প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ানোর অভিযোগও ঠিক নয়। এছাড়া বাদীকে হুমকি দেয়ার ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 নড়াইল