banglanewspaper

মৃত হাতির মাংস দিয়ে বনভোজন করছে ভারতের মিজোরাম প্রদেশের একটি প্রত্যন্ত গ্রামের লোকজন। সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। আর সব দেখেশুনেও হাত গুটিয়ে বসে আছে রাজ্যের বন দপ্তর।

তবে কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা এ ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম ইনসাইড এনই এক খবরে জানায়, সম্প্রতি পশ্চিম মিজোরামের মানিত জেলার কানহমুন জঙ্গলে লক্ষ্মী নামের ৪৭ বছর বয়সী একটি হাতির মৃত্যু হয়।

পরে সেই মৃত হাতিটিকে কেটে টুকরো টুকরো করে মাংস সারা গ্রামের মানুষের মাঝে বিলিয়ে দেওয়া হয়। আর সেই মাংস দিয়ে চলে বনভোজন।

বেঙ্গালুরু ভিত্তিক বন্যপ্রাণী উদ্ধার ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের সহপ্রতিষ্ঠাতা তত্ত্বাবধায়ক সুপর্ণা গাঙ্গুলি সোমবার এই ঘটনায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

হাতিদের দুরবস্থা নিয়ে ২০১৪ সালে সুপ্রিম কোর্টে একটি রিট পিটিশনও দাখিল করেছিলেন সুপর্ণা। তাঁর বক্তব্য ছিল, এই হাতিদের মাত্রাতিরিক্ত পরিশ্রমে বাধ্য করা হচ্ছে। যে কারণে তাদের মৃত্যু হচ্ছে।

৪৭ বছর বয়সী হাতি লক্ষ্মীর মৃত্যুও মাত্রাতিরিক্ত পরিশ্রমের কারণে হয়েছে বলে দাবি সুপর্ণার। মিজোরামের ওই গ্রামের বাসিন্দাদের থেকে তিনি এ কথা জানতে পেরেছেন বলে জানিয়েছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 হাতি