banglanewspaper

মনির হোসেন জীবন, নিজস্ব প্রতিনিধি: সাভারের মালঞ্চ এলাকায় রাতের খাবারের সাথে ঘুমের ঔষুধ খাইয়ে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে দেওয়ার অভিযোগে স্ত্রী খাদিজা বেগমকে (২৭) আটক করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় ভূক্তভোগীর ভাই আব্দুস থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনায় ওই এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

গত (১৮ই জুলাই, বৃহস্পতিবার) রাতে সাভারের মালঞ্চ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে বশিরকে গুরুতর অবস্থায় সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে (১৯শে জুলাই, শুক্রবার) রাতে সাভারের বনপুকুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে খাদিজাকে আটক করা হয়। 

আজ (২০শে জুলাই, শনিবার) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শেখ তরিকুল ইসলাম।

পুরুষাঙ্গ হারানো বশির আহম্মেদ (৪০) বরিশালের কোতয়ালী থানা এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে এবং সে সাভারের রাজ্জাক প্লাজায় একটি দোকানে মোবাইল সার্ভিসিং এর কাজ করতেন এবং তার স্ত্রী খাদিজা বেগম একই জেলা ও থানাধীন চন্ডিপুর এলাকার নওয়াব আলীর মেয়ে।

ভূক্তভোগীর স্বজনরা জানান, গত কয়েক দিন ধরে মোবাইলের সিম হারানোকে কেন্দ্র করে বশির ও খাদিজার মধ্যে ঝগড়া চলছিল। এরই জের ধরে গত বৃহস্পতিবার রাতে বশিরকে রাতের খাবারের সাথে ঘুমের ঔষুধ খাওয়ান তার স্ত্রী খাদিজা। পরে তিনি ঘুমিয়ে পড়লে রাত ২টার দিকে ঘুমন্ত অবস্থায় বশিরের পুরুষাঙ্গ কেটে দেয় স্ত্রী খাদিজা। এসময় বশিরের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভর্তি করেন।

সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শেখ তরিকুল ইসলাম বলেন, ভূক্তভোগীর ভাইয়ের অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে সাভারের বনপুকুর এলাকা থেকে খাদিজাকে আটক করা হয়েছে এবং তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলেও তিনি জানান।
 

ট্যাগ: bdnewshour24 স্বামীর পুরুষাঙ্গ সাভার