banglanewspaper

ইউরোপের বিভিন্ন দেশে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতদের রাজনৈতিক কূটনীতির পাশাপাশি অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্ব আরোপ করতে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (২০ জুলাই) লন্ডনের একটি হোটেলে আয়োজিত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতদের সম্মেলনে যোগ দিয়ে এ আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। প্রথমবারের মতো এই ধরনের কোনো সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে।

সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম। তার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা বাসস এসব তথ্য জানিয়েছে।

সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের চলমান উন্নয়ন কর্মসূচি যাতে অব্যাহত থাকে, সেজন্য রাজনৈতিক কূটনীতির পাশাপাশি অর্থনৈতিক বিষয়ে আরও গুরুত্ব দিতে হবে।’

কোন দেশে কোন ধরনের পণ্যের চাহিদা আছে তা খুঁজে বের করতেও রাষ্ট্রদূতদের নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমরা যেমন বন্ধুত্ব রাখবো সাথে সাথে আমাদের ব্যবসা বাণিজ্য বৃদ্ধি করা, বিনিয়োগ বৃদ্ধি করা। আমরা যেমন বিদেশি বিনিয়োগ চাই তেমনি আমাদের যারা প্রবাসী যারা আছেন তাদের বিনিয়োগও আমরা চাই। কোন কোন অঞ্চলে, যেমন আপনারা এসেছেন ইউরোপের দেশগুলো থেকে। এই ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন ধরনের চাহিদা আছে। তাহলে কোন কোন দেশে কী কী ধরনের পণ্যের চাহিদা সেগুলো যেমন খুঁজে বের করতে হবে। বা সেই পণ্যগুলোর মধ্যে কী কী আমরা উৎপাদন করতে পারি বা রফতানি করতে পারি, আমাদের রফতানির বাস্কেটটা বাড়ানো। ইতোমধ্যে যেমন আইসিটি বা ডিজিটাল ডিভাইস আমরা উৎপাদন করতে শুরু করেছি। গার্মেন্টস আমাদের যাচ্ছে। আমাদের খাদ্য প্রক্রিয়াজাত শিল্প গড়ে তোলার দিকে আমরা বিশেষ নজর দিচ্ছি। আমাদের খুঁজে দেখতে হবে যে কোন দেশে কী ধরনের পণ্য চাহিদাটা।’

সম্মেলনে প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন এবং প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা দেন।

রাষ্ট্রদূত সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান ও পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক।

ইউরোপের বিভিন্ন দেশে নিযুক্ত ১৫ জন রাষ্ট্রদূত, হাইকমিশনার এবং স্থায়ী প্রতিনিধি এই সম্মেলনে যোগ দিয়েছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 প্রধানমন্ত্রী