banglanewspaper

ময়মনসিংহের ভালুকায় ‘কল্লা কাটা’ অপবাদ দিয়ে দুই যুবককে পিটিয়েছে স্থানীয় কয়েকজন যুবক। তারা হলেন- শেখ ফরিদ ও মঞ্জুরুল খান। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। তারা হলেন- জয়নাল, সোহাগ ও সুমন। রবিবার এই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার হবিরবাড়ি ইউনিয়নের আমতলী গ্রামে বোনের বাড়িতে বেড়াতে যান ফরিদ ও মঞ্জুরুল।

রবিবার দুপুরে বোনের বাসার সামনের সড়কে দাঁড়িয়ে কথা বলছিলেন তারা। এ সময় সুজন (১৮) ও হৃদয় (১৯) নামে স্থানীয় দুই কিশোর তাদের পরিচয় জানতে চায়। মঞ্জুরুল জানান, তারা তাদের বোনের বাসায় বেড়াতে এসেছেন। সত্যতা যাচাইয়ে দুজনকে স্থানীয় ওই দুই কিশোর বাসার ভেতরে নিয়ে যায়।

তখন বাসার অন্য ভাড়াটিয়া জানান যে, তারা তাদের বোনের বাসাতেই বেড়াতে এসেছেন। এরপর স্থানীয় সুজন ও হৃদয় ফের তাদেরকে সড়কে নিয়ে যান। পরে তাদের কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা চাওয়া হয় বলে জানা যায়।

টাকা না পেয়ে সুজন ও হৃদয় মুঠোফোনে আরও কয়েকজনকে ঘটনাস্থলে ডেকে আনেন। পরে সবাই মিলে ফরিদ ও মঞ্জুরুলকে কল্লা কাটা অপবাদ দিয়ে মারধর শুরু করে।

খবর পেয়ে ভালুকা থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই যুবককে উদ্ধার করে এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তিনজনকে আটক করে।

ভালুকা মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইন উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মারধরে আহত দুজনকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ট্যাগ: bdnewshour24 কল্লা কাটা