banglanewspaper

তৃষ্ণা মেটানোর পাশাপাশি শরীরের ভারসাম্য বজায় রাখে পানি। পানির অপর নাম জীবন। পানি ছাড়া এক মুহূর্তও চলে না। কিন্তু দাঁড়িয়ে পানি পান করলে দেখা দিতে পারে নানা সমস্যা। চিকিৎসকদের মতে, বসে পানি পান করা অনেক বেশি স্বাস্থ্যসম্মত। 

শরীরের পেশি, হাড়, অঙ্গপ্রত্যঙ্গের অবস্থান, সবকিছুর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই পানি পান করতে হবে। চিকিৎসকদের পরামর্শ, রক্তচাপ, স্নায়বিক ক্রিয়াকলাপ, কিডনির কার্যকারিতায় ভারসাম্য বজায় রাখতে বসে পান করতে হবে পানি। 

দাঁড়িয়ে পানি পান করলেও যেসব ক্ষতি: 
আমরা অনেক সময় তাড়াহুড়ো করে দাঁড়িয়েই পানি পান করি। কিন্তু স্নায়বিক উত্তেজনা ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে বসে পানি পান করাই ভালো। 

দাঁড়িয়ে পানি পান করলে কিডনির কার্যক্ষমতা কমে যায়। শরীরের ভিতরের ছাঁকনিগুলি কুঁচকে যায় ও নেফ্রনগুলো শরীর থেকে টক্সিন সরানোর সুযোগ পায় না। 

যদি কেউ দাঁড়িয়ে পানি পান করে তবে সেই পানি সরাসরি ওই ব্যক্তির পাকস্থলিতে গিয়ে ধাক্কা দেয়। আর তখন পাচকরসের ক্ষরণ কমে হজমে সমস্যা হয়।

দাঁড়িয়ে পানি পান করলে কিডনির কর্মক্ষমতা কমে। ফলে কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত বা বিকল হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

এছাড়াও দাঁড়িয়ে পান করলে হৃদযন্ত্রের উপরেও বাড়তি চাপ পড়ে। দেখা দিতে পারে শ্বাসকষ্টও। 

পরামর্শ: 
যদি চলার পথে তেষ্টা মেটাতে চান তবে অল্প করে পানি পান করে নিন। এরপর যাত্রা বিরতিতে বসে পর্যাপ্ত পানি পান করুন। 

নিয়ম:
সব সময় শরীরে পানির চাহিদা সমান থাকে না। কখনোই মুখে অতিরিক্ত পানি নিয়ে পান করবে না। ভালো হয় যদি ছোট ছোট চুমুকে ধীরেসুস্থে পানি খান করেন। পানি পানের সময় কথা বলা থেকে বিরত থাকুন। দৌড়ে এসে কিংবা হাঁপাতে হাঁপাতে দ্রুত পানি পান করা যাবে না। তাতে শ্বাসনালীতে বড় সমস্যা দেখা দিতে পারে। 

ট্যাগ: bdnewshour24 সাবধান