banglanewspaper

ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যের শতাধিক গ্রামে গত তিন মাসে জন্ম নেওয়া শিশুদের মধ্যে একটিও কন্যাসন্তান নেই বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য দপ্তর।

রাজ্যের উত্তরকাশী জেলার ১৩৩টি গ্রামে গত তিন মাসে জন্মানো ২১৬ শিশুর সবকটিই ছেলে, সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে এমনই তথ্য জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর। এ ঘটনায় রীতিমতো নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি উত্তরকাশী জেলায় শিশু স্বাস্থ্য বিষয়ক এক সমীক্ষায় দেখা যায়, স্থানীয় দুন্ডা ব্লকে ২৭টি গ্রামে গত তিন মাসে জন্ম নেওয়া ৫১ শিশুর প্রত্যেকেই ছেলে। একই ছবি উঠে এসেছে জেলার ভাটওয়ারি ও নওগা ব্লকের গ্রামগুলো থেকে।

পুরো ব্যাপারটি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। এরই মধ্যে জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে গঠিত হয়েছে একটি বিশেষ প্রতিনিধি দল। এ প্রতিনিধি দল সংশ্লিষ্ট গ্রামগুলো পরিদর্শন করে প্রত্যকে পরিবারের ছয় বছর বয়স পর্যন্ত শিশুদের সংখ্যা জানবে এবং  পুত্র ও কন্যা সন্তানের অনুপাত খুঁজে বের করবে। সন্তান জন্মদানে ছেলে-মেয়ের আনুপাতিক হারে প্রকট বৈষম্যের বিষয়টি বিস্তারিত তদন্ত করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক আশিস চৌহান জানান, কন্যা সন্তানের ভ্রুণ হত্যা বন্ধে সচেতনতা সৃষ্টিতে গাফিলতি ধরা পড়লে স্বাস্থ্যকর্মীদের ব্যাপারে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

কন্যা সন্তানের ভ্রুণ হত্যা এ ঘটনার মূল কারণ হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে জেলা প্রশাসনের ধারণা। স্থানীয় সমাজকর্মীদের একটি অংশের ধারণাও এমনই।

ট্যাগ: bdnewshour24 ভারত