banglanewspaper

দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে গণধোলাইয়ের ঘটনা শিরোনামে উঠে আসছে। এবার গণপিটুনির শিকার হলেন ভারতের জাতীয় স্তরের এক খেলোয়াড়। নাম দেবাংশ রানা। আর সেই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ঘটনার কারণ নিয়ে নিজেও ধোঁয়াশায় তরুণ খেলোয়াড়। ইতোমধ্যেই তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

দেশটির উত্তর প্রদেশের বাঘপথে ঘটেছে ঘটনাটি। দেবাংশ রানা জানান, কয়েকজন যুবকের দাবি তিনি নাকি তাদের এক বন্ধুকে হুমকি দিয়েছেন। আর সেই কারণেই সোমবার রাস্তায় ফেলে তাকে মারধর করা হয়।

খেলোয়াড়ের ভাষায়, আমি তখন কাজে বেরিয়েছিলাম। আমচকাই আমার রাস্তা আটকে দাঁড়ায় চার দুস্কৃতি। তারপরই সবাই মিলে বেধড়ক মারতে থাকে আমায়। বলে, আমি নাকি তাদের কোনও এক বন্ধুকে হুমকি দিয়েছি। তারই প্রতিশোধ নিতে মারধর করা হচ্ছে। তাদের মধ্যে একজন মোবাইলে ঘটনাটি ভিডিও রেকর্ড করে। তারপর সেটি পোস্ট করে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিওটি ভাইরাল হতে বেশি সময় লাগেনি। আহত অবস্থায় কোনওক্রমে ফিরে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানান তিনি। ইতিমধ্যেই চার অভিযুক্তর মধ্যে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পুলিশ জানায়, ঘটনায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তিনজনকে গ্রেফতার করা গেছে। চতুর্থ অভিযুক্তর খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি।

দেবাংশের বাবা দশেন্দ্র রানা জানান, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি দেখেই তিনি ঘটনাটি জানতে পারেন। এমন পরিস্থিতিতে ছেলের পাশে দাঁড়িয়েছেন বাবা। তবে দিনদুপুরে এমন ঘটনা ঘটায় আতঙ্কিত দেবাংশ রানা এবং তার পরিবার। সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।

ট্যাগ: bdnewshour24 খেলোয়াড়