banglanewspaper

সদ্য সমাপ্ত ২০১৯ বিশ্বকাপে অংশ্রহণকারী দলগুলোকে সর্বমোট ১০ মিলিয়ন ডলার প্রাইজমানি দিয়েছে আইসিসি। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৮৪ কোটি ৪৫ লাখ ২০ হাজার টাকা। 

জানা গেছে, চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড পেয়েছে ৪০ লাখ ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩৩ কোটি ৭৮ লাখ। আর রানার্স-আপ নিউজিল্যান্ড পেয়েছে ২০ লাখ ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৬ কোটি ৮৯ লাখ টাকা।

ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড ছাড়া এবারের বিশ্বকাপে শেষ চারে খেলা প্রতিটি দল পেয়েছে ৮ লাখ ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৬ কোটি ৭৫ লাখ ৬১ হাজার টাকা। 

এছাড়া এবারের বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দলগুলোকে ১ লাখ ডলার করে (প্রায় ৮৪ লাখ ৪৫ হাজার টাকা) দেওয়া হয়েছে । আর রাউন্ড রবিনে প্রতিটি ম্যাচ জয়ের জন্য দেওয়া হয়েছে ৪০ হাজার ডলার (প্রায় ৩৩ লাখ ৭৮ হাজার টাকা)। 

সেই হিসেব অনুযায়ী চ্যাম্পিয়ন হওয়ার প্রাইজমানি ছাড়াও রাউন্ড রবিনে ৬ ম্যাচ জয়ের জন্য ২ লাখ ৪০ হাজার ডলার (মোট ৪২ লাখ ৪০ হাজার ডলার) পেয়েছে ইংল্যান্ড। আর ৫ ম্যাচ জয়ের জন্য রানার্প-আপ নিউজিল্যান্ড পেয়েছে ২ লাখ ডলার (মোট ২২ লাখ)।

সমান ৭ জয় ও সেমিফাইনালের প্রাইজমানি মিলিয়ে অস্ট্রেলিয়া-ভারত পেয়েছে ১০ লাখ ৮০ হাজার ডলার (প্রায় ৯ কোটি ১২ লাখ টাকা)।

অন্য দলগুলোর মধ্যে তিন জয় ও অংশগ্রহণ মিলিয়ে বাংলাদেশ পেয়েছে ২ লাখ ২০ হাজার ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ১ কোটি ৮৫ লাখ ৭৯ হাজার ৪ শত ৪০ টাকা। রাউন্ড রবিনে ৭ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার অষ্টম স্থান দখল করে বিশ্বকাপ মিশন শেষ করে টাইগাররা। 

এদিকে বাংলাদেশের সমান অংকের প্রাইজমানি পেয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। টাইগারদের সমান পয়েন্ট নিয়ে তালিকার সপ্তম স্থানে থেকে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেয় প্রোটিয়ারা। 

অপরদিকে ৮ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার ষষ্ঠ স্থানে থাকলেও বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকার সমান প্রাইজমানি পেয়েছে শ্রীলঙ্কা। তারা জিতেছে ৩টি ম্যাচ। তবে বৃষ্টির কারণে দুই ম্যাচ বাতিল হওয়াতে ২ পয়েন্ট পায় তারা।

৫ জয় নিয়ে পাকিস্তান পেয়েছে ৩ লাখ ডলার। আর দুই জয় নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেয়েছে ১ লাখ ৮০ হাজার ডলার (প্রায় ১ কোটি ৫২ লাখ টাকা)। 

এছাড়া একটি ম্যাচে জয় না পেলেও খালি হাতে ফেরেনি আফগানিস্তান। রশিদ-নবীরা পেয়েছেন অংশগ্রহণের ১ লাখ ডলার।

ট্যাগ: bdnewshour24 বিশ্বকাপ