banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিবেদক: চারপাশে নয়নাভিরাম সবুজের সমরোহের মাঝে সুউচ্চু দালানে ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর স্থায়ী ক্যাম্পাস। ক্যাম্পাসের গ্রাউন্ড ফ্লোরে অবস্থিত ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর আধুনিক ক্যাফেটেরিয়া। কোলাহলপূর্ণ এই শহরের মাঝে ক্যাফেটেরিয়ায়টিতে বসলে যেন হারিয়ে যেতে মন চাইবে অপূর্ব সৌন্দর্যের লীলাভূমিতে। চোখজুড়ানো এই সৌন্দর্য আকৃষ্ট করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও বিমুগ্ধ করে সবাইকে।

ক্যাফেটেরিয়ায় প্রবেশ করলেই দেখা যাবে একদিকে বয়ে চলা জলরাশির লেক। লেক থেকে আরেকটু দূরে চোখ মেলালেই দেখা যাবে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান উড্ডয়ন ও অবতরণের মনোরম দৃশ্য। আরেকদিকে চোখ মেললে দেখতে পাবেন মেঘ আর আকাশের মিলন মেলা। বৃষ্টির দিনে মেঘের লুকোচুরির খেলা দেখবেন খুব কাছ থেকেই। এই ক্যাফেটেরিয়ার সবথেকে আকর্ষণীয় ব্যাপার হলো মেট্রোরেল প্রকল্প। ক্যাফেটেরিয়াতে বসে খেতে খেতে বা আড্ডা দিতে দিতে মেট্রোরেল যাওয়া আসার দৃশ্যও চোখে পড়বে মেট্রোরেল চালু হলে। 

শিক্ষার্থীদের মানসম্মত খাবারের মান নিশ্চিত করার জন্য রাজধানীর উত্তরায় ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর স্থায়ী ক্যাম্পাসে আধুনিক ক্যাফেটেরিয়া উদ্বোধন করা হয়েছে। ক্যাফেটারিয়ার মূল উদ্দেশ্য শুধু খাবার পরিবেশনই নয় খাবারের সাথে সাথে চারিদিকের পরিবেশটাও দেখে যেন সবাই মুগ্ধ হতে পারেন। খেতে খেতে এই মনোরম দৃশ্য ক্যামেরায় ধারণ করে মুহূর্তের মধ্যেই আপনার বন্ধুদের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড দিতে পারবেন।

মজার ব্যাপার হলো ক্যাফেটেরিয়ার চারিকদিকে টবে লাগানো বিভিন্ন গাছ দেখে মনে হবে আপনি বাইরের সবুজ আর ভেতরের মনোরম দৃশ্যে হারিয়ে গেছেন কোনও এক বাগানে। পুরো ক্যাফেটেরিয়ায় শতাধিক জনের বেশি বসতে পারবে। সংযোজিত হয়েছে নতুন এসি, ফ্যান, টিভি, বেসিন, পানীয় ফিল্টার, চেয়ার ও টেবিল। 

ট্যাগ: bdnewshour24 ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি ক্যাফেটেরিয়া উত্তরা