banglanewspaper

বলিউডে সংসার ভাঙার তালিকায় এবার যোগ হলো অভিনেত্রী দিয়া মির্জার নাম। ২০১৪ সালে তিনি বিয়ে করেছিলেন দীর্ঘ দিনের ব্যাবসায়িক পার্টনার সাহিল সাঙ্ঘাকে। দীর্ঘ ১১ বছরের সঙ্গ। সব ভালোই চলছিল।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাদের ভালোবাসার ঘর দীর্ঘস্থায়ী হল না। বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় যৌথভাবে পোস্ট দিয়ে দিয়া মির্জা ও সাহিল জানিয়ে দিয়েছেন, তারা আর বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ নেই। আলাদা হয়ে গেছে তাদের জীবনের পথ।

অভিনেত্রী দিয়া মির্জা তার ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লেখেন, ‘১১ বছর একে অপরের সঙ্গে জীবন কাটানোর পর আমরা দুজনে মিলে আলাদা হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তবে এই বিচ্ছেদের জন্য আমাদের বন্ধুত্বের সম্পর্কে কোনো ফাটল ধরবে না। জীবনের চলার পথ আমাদের যেদিকেই নিয়ে যাক না কেন, আমাদের মধ্যে যে সম্পর্ক রয়েছে তার জন্য আজীবন কৃতজ্ঞ থাকব।’

এই সময়ে পাশে থাকার জন্য পরিবার ও বন্ধুবান্ধবদের পাশাপাশি সংবাদমাধ্যমকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান দিয়া। একই সঙ্গে নায়িকা এও বলেন, এই মুহূর্তে তাদের যে প্রাইভেসি প্রয়োজন, তা যেন সবাই মাথায় রাখেন।

বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে যাতে তাকে অথবা সাহিলকে আর কোনো বাড়তি প্রশ্ন না করা হয়। এটা নিশ্চিত করতে দিয়া লিখেন, ‘এই বিষয়ে আমরা আর কোনো জবাব দেব না।’

‘তুমকো না বোল পায়েঙ্গে’ তারকা দিয়ার এই পোস্টের নিচে শ্রেয়াসজিৎ দেব রায় নামে এক নেটিজেন মন্তব্য করেছেন, ‘তারকাদের বিয়ে আবার মনের অন্তরে দানা বাঁধে নাকি? বারংবার এই ধরণের ঘটনা প্রমাণ করে যে, তারকাদের বিয়ে একটা মোহের বিয়ে।

মোহ যেদিন কেটে যাবে বিচ্ছেদের কথা তখনই শোনা যাবে!’

ট্যাগ: bdnewshour24 সংসার দিয়া মির্জা