banglanewspaper

ডেঙ্গু নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যখন ভয়াবহ অবস্থা বিরাজ করছে। এমন সময়ে মশা না মারার আকুতি জানিয়েছেন ফ্রান্সের এক প্রাণী অধিকারকর্মী। তিনি মশা না মেরে তাদেরকে রক্ত খেতে দেওয়ারও আহ্বান জানিয়েছেন।

রক্ত খেতে আসলে মশাকে মারবে না বরং তাকে রক্ত খেতে দিন- মশা সম্পর্কে এমন আবেদন জানিয়েছেন আইমেরিক ক্যারোন নামের ওই ফরাসী প্রাণী অধিকারকর্মী। তিনি একজন টিভি উপস্থাপক। তিনি জানান, মশা মূলত তার ডিমের পুষ্টির জন্য মানুষের রক্ত খায়। এটা খুব বিব্রতকর যে কোনো মা তার ভবিষ্যত সন্তানের সুস্থতার জন্য কাজ করছেন আর তাকে মেরে ফেলা হচ্ছে।

আইমেরিক ক্যারোন নিজেকে অ্যান্টি স্পেসিস্ট হিসেবে দাবি করেন। এরা মূলত কোনো প্রজাতি সাধারণত প্রাণীর বিরুদ্ধে বৈষম্যের বিরোধিতা করে। তিনি বলেন, পোকামাকড় বিশেষ করে মশা মানুষকে কামড়াতে আসলে তাকে কামড়াতে দেওয়া উচিত শুধুমাত্র আফ্রিকা ব্যতিত। কারণ সেখানে মশায় কামড়ালে ম্যালেরিয়া হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

ক্যারোন বলেন, মশা শরীর থেকে রক্ত খেলে তাকে রক্তদান হিসেবে বিবেচনা করা উচিত এবং তাদের হত্যা করা থেকে বিরত থাকা উচিত। যদিও প্রয়োজনে মশা হত্যা করা যেতে পারে।

একটি ভিডিওতে ক্যারোন বলেন, মশার রক্ত খাওয়াকে আপনি এভাবে ভাবতে পারেন যে, তাকে আপনি রক্তদান করছেন। যে কি না তার বাচ্চাদের লালনপালনের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে। সে আসলে কোনো অভিনয় করছে না। একটি মা মশার কাছে এই ছাড়া কোনো পছন্দ অবশিষ্ট থাকে না।

ক্যারোন বলেন, কেউ চাইলে মশার কামড় এড়িয়ে চলতে পারেন। এজন্য রসুনসহ প্রাকৃতিক বিভিন্ন উপাদান ব্যবহার করতে পারেন যাতে করে মশায় না কামড়ায়। এছাড়া সুগন্ধি ব্যবহার এড়িয়ে চলুন।

তার কথায়, আফ্রিকায় আপনি মশায় কামড়াতে আসলে মারতে পারেন। কেননা সেখানে ম্যালেরিয়া হওয়ার ভয় থাকে। কিন্তু ফ্রান্সে তিনি মশাকে কামড়ানোর সুযোগ দিতে রাজি আছেন।

প্রাণী রক্ষার ব্রিটেন ভিত্তিক সংগঠনের প্রধান টনি ভারনেল্লি অবশ্য ক্যারোনের সঙ্গে একমত নন। বছরে ম্যালেরিয়ায় নিহতদের নিয়ে তিনি একটু প্রতিবেদন তৈরি করবেন। তিনি বলেন, এমন ধরনের প্রাণী রক্ষায় ব্যস্ত না হয়ে আমাদের মূলত প্রাণীল মাংস খাওয়া, চামড়ার পণ্য পরিহার করাসহ এমন কাজগুলো করতে হবে।

ট্যাগ: bdnewshour24 মশা আকুতি প্রাণী অধিকারকর্মী