banglanewspaper

প্রচণ্ড খরার কবলে পড়েছে থাইল্যান্ডে। খরায় পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ যে ২০ বছর আগে পানির নিচে তলিয়ে যাওয়া একটি বৌদ্ধ মন্দিরের ফের দেখা মিলেছে। দুই দশক আগে ওই মন্দিরটি ড্যামের পানির নিচে হারিয়ে গিয়েছিল।

পানির নিচে দীর্ঘদিন থাকতে থাকতে মন্দিরের বুদ্ধ মূর্তির মাথা ভেঙে পড়ে গেছে। তবু সেই হঠাত্ৎ জেগে ওঠা মন্দির দেখতেই ভিড় জমাচ্ছেন বহু মানুষ।

থাইল্যান্ডের লোপবুরিতে রিজার্ভারের পানি নেমে এসেছে একেবারে তলানিতে। সেই শুকনো জমিতেই এখন দেখা যাচ্ছে একটি আধুনিক বৌদ্ধ মন্দির। এখানে ২০ বছর আগে ড্যাম তৈরি হওয়ার পর থেকেই পানির নিচে হারিয়ে যায় মন্দিরটি।

মাথা ভেঙে পড়ে যাওয়া ১৩ ফুট উুঁচু বুদ্ধ মূর্তিটিকে দেখতে খালি পায়ে দূর-দূরান্ত থেকে আসছেন বৌদ্ধ সন্ন্যাসীরা। মন্দিরের দেখা পাওয়ায় তাঁরা খুশি হলেও খরার প্রকোপ যেভাবে বাড়ছে, তাতে চিন্তিত সবাই। 

৯৬০ মিলিয়ন কিউবিক মিটার পানি ধরে এই ড্যামে। গত এক দশকের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ এই খরায় পানি নেমে এসেছে একেবারে তলানিতে। এক সময় এই মন্দিরে নানা পুজা ও সামাজিক অনুষ্ঠান হত বলে জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। 

ট্যাগ: bdnewshour24 মন্দির