banglanewspaper

যাদের ব্লাড প্রেশার বা রক্তচাপ রয়েছে, তাদের জন্য সুখবর। ভিডিও সেলফির মতো সহজ উপায়ে রক্তচাপ মাপার পদ্ধতি সফল হওয়ার পথে। যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার গবেষকেরা ট্রান্সডারমাল অপটিক্যাল ইমেজিং নামের একটি প্রযুক্তি নিয়ে পরীক্ষা চালাচ্ছেন। এ পদ্ধতিতে স্মার্টফোনের মাধ্যমেই ধারণ করা মুখের ভিডিওতে রক্তের প্রবাহ শনাক্ত করে রক্তচাপ বের করা যাবে। আইএএনএসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক রামকৃষ্ণ মুক্কামালা বলেন, গবেষণায় দেখা গেছে, ফেশিয়াল ভিডিওতে সিস্টোলিক রক্তচাপের কিছু তথ্য থাকে। ত্বকের বাইরে স্তরে অ্যামবিয়েন্ট লাইটের সাহায্যে স্মার্টফোনের অপটিক্যাল সেন্সর রক্তপ্রবাহের ধরন বুঝতে পারে। এতে ট্রান্সডারমাল অপটিক্যাল ইমেজিং মডেলে রক্তচাপ অনুমান করা যায়।

কানাডার টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ক্যাং লি গবেষণা প্রবন্ধের মূল লেখক। তিনি বলেন, উচ্চ রক্তচাপ হৃদ্‌রোগের অন্যতম কারণ। রক্তচাপ ব্যবস্থাপনা ও প্রতিরোধে নিয়মিত রক্তচাপ পর্যবেক্ষণ করা জরুরি। কাফভিত্তিক রক্তচাপ পরিমাপক যন্ত্র নিখুঁত ফল জানাতে পারলেও তা অস্বস্তিকর। রক্তচাপ মাপার জন্য আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের নীতিমালা মানা হয় না।

গবেষণাসংক্রান্ত নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে ‘সার্কুলেশন: কার্ডিওভাসকুলার ইমেজিং’ শীর্ষক সাময়িকীতে। এ সময় গবেষকেরা ১ হাজার ৩২৮ জন কানাডীয় ও চীনা নাগরিকের রক্তচাপ মাপেন। আইফোনে বিশেষ সফটওয়্যার যুক্ত করে দুই মিনিট ভিডিওর মাধ্যমে রক্তচাপ নির্ণয় করেন তাঁরা।

গবেষকেরা কাফভিত্তিক রক্তচাপের ফলাফলের সঙ্গে ভিডিও সেলফির রক্তচাপের তুলনা করেন। গবেষকেরা বলেন, ৯৫ শতাংশ ক্ষেত্রে সঠিক ডায়াস্টোলিক রক্তচাপ ও পালস প্রেশার ৯৬ শতাংশ সঠিক তথ্য পেয়েছেন তাঁরা।

গবেষক লি দাবি করেন, আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী ডিভাইসের মতোই এ প্রযুক্তি নিখুঁতভাবে রক্তচাপ মাপতে পারে। গবেষকেরা অবশ্য নিয়ন্ত্রিত পরিবেশে নির্দিষ্ট আলোয় ভিডিও ধারণ করেছিলেন। তবে বাইরের পরিবেশে বা বাড়িতে ভিডিও প্রযুক্তি কতটুকু কার্যকর হবে, তা এখনো পরিষ্কার নয়। এ ছাড়া পরীক্ষায় ব্যবহৃত নমুনা যথেষ্ট নয়।

ট্যাগ: bdnewshour রক্তচাপ