banglanewspaper

কোপা আমেরিকার ফাইনালে জিতলেও সেই ম্যাচে লাল কার্ড দেখেছিলেন ব্রাজিল তারকা গ্যাব্রিয়েল জেসুস। পেরুর বিপক্ষে কোপার ফাইনালে ৩-১ গোলের জয়ের ম্যাচে রেফারির সিদ্ধান্তকে মেনে নিতে পারেননি ম্যানচেস্টার সিটির এই ফরোয়ার্ড। বাজে ইশারায় প্রতিবাদ করেন, ড্রেসিং রুমে ফেরার পথে ভিডিও অ্যাসিস্টেন্ট রেফারির (ভিএআর) মনিটরিং বক্সে ধাক্কা মারেন।

অখেলোয়াড়সুলভ এই বাজে আচরণে আন্তর্জাতিক ফুটবলে জেসুসকে ২ মাস নিষিদ্ধ করা হয়েছে। নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি জেসুসকে ৩০ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানাও করা হয়েছে। দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবল জেসুসের নিষিদ্ধের কথাটি নিশ্চিত করেছে। তবে, এ ব্যাপারে আত্মপক্ষ সমর্থন করে আপিলের সুযোগ পাচ্ছেন জেসুস। সিদ্ধান্ত বহাল থাকলে আগামী সেপ্টেম্বরে কলম্বিয়া ও পেরুর বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ মিস করবেন ব্রাজিলিয়ান এই তারকা।

কোপার ফাইনাল ম্যাচের ৭০তম মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড পেয়ে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন জেসুস। তার আগে ম্যাচের ১৫তম মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন এভারটন, সেই গোলে এসিস্ট করেন জেসুস। এরপর ম্যাচের ৩০ মিনিটে প্রথম হলুদ কার্ড দেখেন তিনি। এরপর ৭০তম মিনিটে পেরুর জামব্রানোকে ফাউল করলে রেফারি দ্বিতীয় হলুদ কার্ডসহ লাল কার্ড দেখান জেসুসকে।

মাঠ থেকে বেরিয়ে ড্রেসিংরুমের সামনে কাঁদতে দেখা যায় ম্যানচেস্টার সিটির এই তারকা ফরোয়ার্ডকে। সেই লাল কার্ডে ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বার মাঠ থেকে বেরিয়ে যেতে হয়েছিল জেসুসকে। ২০১৬ সালে ক্লাব ফুটবলে পালমেইরার হয়ে একটি ম্যাচে তিনি লাল কার্ড দেখেছিলেন।

ট্যাগ: bdnewshour ব্রাজিল