banglanewspaper

দিনে দিনে গুজব যেনো মহামারি আকার ধারণ করছে। বিশেষ করে প্রযুক্তির এই যুগে খুব সহজেই একটি মিথ্যা ঘটনা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। এবার চিত্রনায়িকা শাবনূরকে নিয়ে গুজব ছড়ানো হয়েছে।

দুই বছর আগে গুজব ছড়িয়ে ছিল জনপ্রিয় নায়িকা শাবনূর এক ভয়ংকর রোগে আক্রান্ত। এবার ছড়ানো হয়েছে ‘নায়িকা শাবনূর মারা গেছেন’ এমন খবর! আর এই উড়ো খবর প্রকাশের পর আতঙ্কিত হয়ে পড়ে ঢালিউড। অথচ এই নায়িকা বর্তমানে স্বামী-সন্তান নিয়ে বসবাস করছেন  অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে।

এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে শাবনূরের বোন ঝুমু জানান, শাবনূরের মৃত্যুর খবরটি মিথ্যে। এটি গুজব। কিছুদিন পর পর বিভিন্ন শিল্পীদের মৃত্যুর গুজব ছড়ানো হয়। কে বা কারা কোন উদ্দেশ্য নিয়ে এটা করে আমার জানা নেই। শাবনূর আপার কিছুই হয়নি। তিনি ভালো আছেন, সুস্থ আছেন, বেঁচে আছেন। অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতেই আছেন।

এদিকে খুব শিগগিরই বাংলাদেশে ফিরবেন শাবনূর। ব্যক্তি জীবনে ২০১১ সালের ৬ ডিসেম্বর ব্যবসায়ী অনিক মাহমুদের সঙ্গে শাবনূরের আংটি বদল হয় এবং ২০১২ সালের ২৮ ডিসেম্বর তাকে বিয়ে করেন। তিনি অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস শুরু করেন ও নাগরিকত্ব লাভ করেন। ২০১৩ সালের ২৯ ডিসেম্বর তিনি ছেলে সন্তানের মা হন। তার ছেলের নাম আইজান নিহান। পর্দার পেছনে তার নাম নুপুর।

শাবনূরের প্রথম চলচ্চিত্র কিংবদন্তি পরিচালক এহতেশামের ‘চাঁদনী রাতে’। ১৯৯৩ সালের ১৫ অক্টোবর ‘চাঁদনী রাতে’ মুক্তি পায়। সাব্বিরের বিপরীতে অভিনীত চলচ্চিত্রটি ব্যবসায়িকভাবে ব্যর্থ হয়। তবে শাবনূরের নায়িকা হয়ে ওঠার সিনেমা ছিল ‘তুমি আমার’। ১৯৯৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত জহিরুল হক পরিচালিত এ সিনেমা দারুণ ব্যবসা সফল হয়। সালমান শাহের সঙ্গে জুটি বেঁধে এই নায়িকা সিনেমা করেন ১৪টি। যার সবগুলোই রেকর্ড সংখ্যকভাবে ব্যবসায়িক সাফল্য পায়।

ট্যাগ: bdnewshour24