banglanewspaper

ফেসবুকে এক তরুণীর সঙ্গে পরিচয়। পরিচয় দিতেন সেনাবাহিনীর মেজর। প্রেম থেকে গড়ায় বিয়েতে। স্ত্রীর কাছে নিজেকে মেজর প্রমাণে নিজের ছবির সঙ্গে সেনাবাহিনী ও বিজিবির পোশাক এডিটিং করে ছবি বানান। কেনেন ওয়াকিটকি। তৈরি করেন এসএসএফ-এর আইডি কার্ড ও ভিজিটিং কার্ড। এভাবে প্রতারণার আশ্রয় নিয়েই প্রেমিকাকে বিয়ে করেন।

মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর সূত্রাপুর এলাকা থেকে মেজর পরিচয়ধারী ওই প্রতারক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। তার নাম শাহারিয়ার ইফতি। বাড়ি কুমিল্লায়। এ সময় উদ্ধার করা হয় এসএসএফ-এর আইডি কার্ড, মেজর পরিচয়ে ভিজিটিং কার্ড, একটি ওয়াকিটকি সেট, সেনাবাহিনী ও বিজিবির ঊর্ধ্বতন অফিসারের পোশাক পরিহিত দুইটি ছবি ও সেনাবাহিনীর বিভিন্ন কোর ও কর্মকাণ্ড (প্রশিক্ষণ) সম্বলিত কাগজপত্র।

বুধবার সন্ধ্যায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

র‌্যাব জানায়, র‌্যাব-১০ এর কোম্পানি কমান্ডার আলী রেজা রাব্বির নেতৃত্বে রাজধানীর সূত্রাপুর এলাকা থেকে শাহারিয়ার ইফতিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে শাহারিয়ার জানান, দেড় বছর আগে ফেসবুকের মাধ্যমে এক তরুণীর সঙ্গে তার পরিচয় হয়। বিয়ের আগে নিজেকে মেজর পরিচয় দিতেন। বিয়ের পর স্ত্রী ও শ্বশুরবাড়ির আস্থা অর্জন, নিজেকে প্রতিষ্ঠিত ও প্রভাবশালী প্রমাণ করার জন্য ওইসব প্রতারণামূলক কৌশল নিয়েছিলেন তিনি।

ওয়াকিটকি কিনে এবং ইন্টারনেট থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিভিন্ন কোরের ধারনা নিয়ে কাগজে নোট রাখতেন। প্রকৃতপক্ষে তিনি সেনাবাহিনী বা অন্য কোন বাহিনীর সদস্য নন।

ট্যাগ: bdnewshour24 স্ত্রী সেনা কর্মকর্তা