banglanewspaper

কাশ্মীরের স্বাধীনতার জন্য শেষ পর্যন্ত লড়াইয়ের ঘোষণা দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।  কাশ্মীরকে রক্ষায় ভারতের বিরুদ্ধে পরমাণু যুদ্ধেরও হুমকি দিয়েছেন তিনি।

জাতির উদ্দেশে ভাষণে নিজেকে কাশ্মীর দূত ঘোষণা করে, কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলকে আরো দায়িত্বশীল ভূমিকার আহ্বান জানিয়েছেন ইমরান খান।

সোমবার জাতির উদ্দেশে ইমরান এমন সময় ভাষণ দিলেন, যখন ফ্রান্সে জি সেভেন সম্মেলনের পার্শ্ববৈঠকে আলোচনায় বসেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়ার একবছর পূর্তিতে ভাষণে ইমরান বলেন, কাশ্মীরি জনগণের জন্য যতদূর যেতে হয় ততদূর যাবে পাকিস্তান।  কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন বাতিলে মোদির সিদ্ধান্তকে ঐতিহাসিক ভুল বলেছেন।  আর এর মধ্য দিয়েই মোদি কাশ্মীরের স্বাধীনতার পথ উন্মুক্ত করেছেন বলেন ইমরান।

ইমরান খান বলেন, বিশ্বনেতারা কাশ্মীরিদের পাশে না দাঁড়ালেও পাকিস্তান সবসময় তাদের পাশে থাকবে।  কাশ্মীরের জনগণের প্রতি সংহতি জানাতে প্রতি শুক্রবার পাকিস্তানজুড়ে সর্বস্তরের মানুষকে, রাস্তায় নেমে সংহতি জানানোর আহ্বান জানিয়েছেন ইমরান।  তিনি বলেন, স্বাধীন কাশ্মীরের লড়াইয়ে ভারতের এখন আর কিছু করার নেই।

কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সঙ্গে দ্বন্দ্ব যে পরিস্থিতির দিকে এগোচ্ছে, তাতে যেকোনো সময় পারমানবিক যুদ্ধের আশঙ্কা করছেন ইমরান খান।  সেই সঙ্গে যুদ্ধ সংগঠিত হলে এর প্রভাব পড়বে বিশ্বব্যাপী বলেছেন তিনি।  আর এর জন্যই আন্তর্জাতিক মহলকে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে দায়িত্বশীল ভূমিকা নেওয়ার আহ্বান জানান ইমরান খান।

৫ আগস্ট কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন বাতিল করে অঞ্চলটিকে দুই টুকরো করে দেয় মোদি সরকার।  কার্যত তারপর থেকেই অচলাবস্থার মধ্যে নিমজ্জিত হয় দুনিয়ার ভূস্বর্গ খ্যাত কাশ্মীর উপত্যকা।

ট্যাগ: bdnewshour কাশ্মীর