banglanewspaper

দেশের সম্প্রচার মাধ্যমে শৃংখলা ফেরাতে ডিজিটালাইজড করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। সেজন্য একটি টাস্কফোর্স গঠনের কথা জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ। পাশাপাশি শিগগিরই গণমাধ্যমকর্মী আইন পাসেরও আশ্বাস দেন তিনি।

বুধবার (২৮ আগস্ট) দুপুরে সচিবালয়ে ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টারের সঙ্গে মতবিনিময়ের পরে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, অতীতের চেয়ে বর্তমানে টেলিভিশন মাধ্যমের বিকাশ ঘটেছে। তবে এর বাজার সংকুচিত হওয়ায় টেলিভিশনগুলো লাভজনক হয়ে ঘুরে দাঁড়াতে পারছেনা। এরই মধ্যে বিদেশি টেলিভিশন চ্যানেলে দেশি বিজ্ঞাপন বন্ধ করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, টেলিভিশনগুলো আয় কমে যাওয়ায় সংবাদকর্মীদের নিয়মিত বেতন দিতে পারেনা। যেসব টেলিভিশন মালিক নিয়ম না মেনে কর্মী ছাঁটাই করছে তাদের ক্ষতিপূরন আদায়েও তিনি উদ্যোগ নিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

গণমাধ্যমকর্মী আইনটি বর্তমানে আইন মন্ত্রণালয়ে ভেটিং এ রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, যাচাই- বাছাই শেষে শিগগিরই মন্ত্রিপরিষদ বৈঠকে উপস্থাপন করার চিন্তা রয়েছে। মন্ত্রিসভা পাস করলে তা সংসদীয় কমিটি পর্যালোচনা করবে তারপর আইনটি সংসদে পাশের জন্য উপস্থাপন করা হবে। আর এসব কাজ দ্রুততার সঙ্গেই করতে চান বলে আশ্বস্ত করেন মন্ত্রী। বলেন আইনটি পাস হলে টেলিভিশন সাংবাদিকদের অধিকার সুরক্ষা হবে।

গণমাধ্যম নীতিমালা পাশ হলে, সম্প্রচার সাংবাদিকদের জন্য আলাদা বেতন কাঠামো হবে বলেও জানান তিনি।

বৈঠকে টেলিভিশন সাংবাদিকদের জন্য একটি আলাদা ওয়েজবোর্ড গঠন, গণমাধ্যমকর্মী আইনটি দ্রুত পাসসহ নিজেদের কর্মপরিবেশ সুরক্ষা রেখে, কারনে-অকারণে কর্মী ছাঁটাই বন্ধে তথ্যমন্ত্রীর সহযোগীতা চান বিজেসি নেতারা।

ট্যাগ: bdnewshour তথ্যমন্ত্রী